মহামারি থেকে মুক্তি ও দেশবাসীর কল্যাণ কামনায় মোনাজাত

নিজস্ব প্রতিনিধি:মহামারি করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) প্রকোপের মধ্যে আরো একটি ঈদুল আজহা বা কোরবানির ঈদ উদযাপন করছেন ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা। দুশ্চিন্তা আর অনিশ্চয়তা নিয়ে মসজিদে মসজিদে পবিত্র ঈদুল আজহার নামাজ আদায় করেছেন তারা।

আর জামাত শেষে করোনাভাইরাসের কবল থেকে বিশ্ববাসীর মুক্তি কামনায় মহান আল্লাহ তাআলার রহমত প্রার্থনা এবং দেশবাসীর সার্বিক কল্যাণ কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।

জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে ঈদুল আজহার পঞ্চম ও সর্বশেষ জামাত সকাল ১০টা ৪৫ মিনিটে অনুষ্ঠিত হয়।  এতে ইমামতি করেন ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মুহাদ্দিস হাফেজ মাওলানা ওয়ালিয়ূর রহমান খান।

এর আগে, বায়তুল মোকাররমে সকাল ৭টায় ঈদের প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত হয়। এতে ইমামতি করেন হাফেজ মুফতি মাওলানা মো. মিজানুর রহমান। সকাল ৮টায় অনুষ্ঠিত দ্বিতীয় জামাতে ইমামতি করেন হাফেজ মুফতি মুহিব্বুল্লাহিল বাকী নদভী। সকাল ৯টায় অনুষ্ঠিত তৃতীয় জামাতে ইমামতি করেন হাফেজ মাওলানা এহসানুল হক। এছাড়া চতুর্থ জামাতে ইমামতি করেন হাফেজ মাওলানা মুহিউদ্দীন কাসেম।

বায়তুল মোকাররমে অনুষ্ঠিত প্রথম জামাতে অংশ নেওয়া মো. বিল্লাল হোসেন বলেন, আল্লাহর অশেষ রহমতে ঈদের দুই রাকাত নামাজ আদায় করেছি। মহামারি করোনাভাইরাস কত মানুষের জীবন কেড়ে নিয়েছে। আমরা একটি কঠিন সময় পার করছি।

নিহাদ হাসান নামের অপর একজন বলেন, মহামারি করোনা আমাদের সবকিছু ওলট-পালট করে দিয়েছে। আগে ঈদের যে আনন্দ ছিল, এখন তো আর নেই। অনেকটাই যন্ত্রের মতো ঈদের জামাত আদায় করছি। এরপরও আল্লাহর কাছে হাজারো শুকরিয়া জামাতে ঈদের নামাজ আদায় করতে পেরেছি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here