রাতে মেলেনি সন্ধান, দুপুরে ভুট্টাক্ষেতে মিলল ফাতেমার লাশ

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি:কুষ্টিয়ার মিরপুরে উম্মে ফাতেমা নামে এক স্কুলছাত্রীকে দুর্বৃত্তরা কুপিয়ে হত্যা করেছে। বুধবার বিকেলে ওই স্কুলছাত্রীর লাশ বাড়ির অদূরে একটি ভুট্টাক্ষেত থেকে উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানান মিরপুর থানার ওসি গোলাম মোস্তফা।

নিহত উম্মে ফাতেমা মিরপুর পৌরসভার তালতলা মহল্লার খন্দকার সাইফুল ইসলামের মেয়ে। সে বডার গার্ড মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী। ফাতেমা পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ডের কটো ডাক্তারের নাতনি।

কুষ্টিয়া-মেহেরপুর সড়কের মিরপুর পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ডের অধীন ভাঙ্গা বটতলার পুর্ব-দক্ষিণে ও শহীদুল ঠাকুরের ইট ভাটার পশ্চিমে (শোলা বিলের মাঠ) ভুট্টাক্ষেত থেকে বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে ফাতেমা খাতুনের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

এ ব্যাপারে নিহতের বাবা খন্দকার সাইফুল ইসলাম বলেন, প্রতিদিনের মতো মঙ্গলবার রাতেও খাওয়া-দাওয়া শেষে ফাতেমা নিজ শয়ন কক্ষে ঘুমিয়ে পড়ে। রাত ২টার দিকে প্রকৃতির ডাকে আমার ঘুম ভেঙে গেলে দেখি তার ঘরের দরজা খোলা। ওই সময় ঘরে না পেয়ে আশপাশের স্থানসহ অনেক জায়গায় খোঁজাখুঁজি করেও তার সন্ধান পাইনি। পরে দুপুরে বাড়ির পাশের মাঠের মধ্যে একটি ভুট্টাক্ষেতে লাশ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা।

স্থানীয়রা বলেন, দুপুরের দিকে ওই স্কুলছাত্রীর লাশ ভুট্টাক্ষেতে পড়ে থাকতে দেখে তারা। পরে বিষয়টি জানাজানি হলে মিরপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়।  পরে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নিয়ে যায় পুলিশ।

এ ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। নিহতের পরিবার, সহপাঠী ও স্থানীয়রা হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।

এ ব্যাপারে মিরপুর থানার ওসি গোলাম মোস্তফা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, কে বা কারা তাকে হত্যা করেছে তা এখনো জানা যায়নি। অপরাধীদের শনাক্ত ও গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। লাশ উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here