যে কারণে বিএনপির আজ করুণ দশা

নিজস্ব প্রতিনিধিঃএকসময় দেশের রাজনীতিতে বিএনপি একটি বড় দল হলেও বর্তমানে এ দলটি কর্মীশূন্য দলে পরিণত হয়েছে। ২০১৩ সাল পর্যন্ত বিরোধী দলে থাকলেও যে দলের অস্তিত্ব ছিল, বর্তমানে বিএনপি বলতে শুধু একটি অলস প্রকৃতির রাজনৈতিক দলকেই বোঝায়।

হঠাৎ ছন্দপতনে দেশের রাজনীতিতে বিএনপির যে দৈন্যদশা দেখা দিয়েছে সেটির জন্য কেবলমাত্র খালেদা জিয়ার অদূরদর্শিতা ও রাজনৈতিক জ্ঞানের অভাবকে দায়ী করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। এছাড়া তারেক রহমানের সীমাহীন লুটপাট, বেগম জিয়ার উদ্দেশ্যহীন রাজনীতি, নেতাকর্মীদের অবমূল্যায়ন করা, শিক্ষার অভাব, অহংকার এবং অতিরিক্ত পরিবার প্রীতির কারণে আজকে বিএনপি দেশের তৃতীয় শ্রেণির রাজনৈতিক দলে রূপান্তরিত হয়েছে বলেও মনে করছেন তারা।

বিএনপির ছন্দপতন এবং রাজনৈতিক কক্ষপথ থেকে ছিটকে পড়ার জন্য দলটির শীর্ষ নেতৃত্ব দায়ী বলে মনে করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের একজন অধ্যাপক। পরিচয় গোপন করার শর্তে তিনি বলেন, বিএনপি একটা সময়ে দেশের বড় রাজনৈতিক দল ছিল। কিন্তু দলটির চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার নির্বুদ্ধিতা, সিদ্ধান্তহীনতা, পরনির্ভরশীলতা, অশিক্ষা ও অতিরিক্ত বিদেশ নির্ভরতার কারণে বিএনপি সময়োপযোগী সিদ্ধান্ত নিতে ব্যর্থ হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, দুর্নীতিবাজদের প্রশ্রয় দেওয়া, যুদ্ধাপরাধীদের পুনর্বাসন, তারেক রহমানের অপরাধের বিষয়ে মুখে কুলুপ আটা, নেতাকর্মীদের অবমূল্যায়ন, দেশের চেয়ে বেশি দলপ্রীতি, দেশের মানুষের নার্ভ বুঝতে না পারার কারণে খালেদা জিয়ার বিএনপি ব্যাকফুটে চলে গিয়েছে।

তিনি বলেন, খালেদা জিয়া কল্যাণমুখী রাজনৈতিক আদর্শ ধারণ করতে ব্যর্থ হওয়ায় তার আমলে সুবিধাবাদীরা মাথা চাড়া দেয়। এর ফলে বাংলাদেশ তৎকালীন সময়ে দুর্নীতির স্বর্গরাজ্যে পরিণত হয়েছিল। সুতরাং বিএনপির যে অধঃপতন হয়েছে, সে জন্য কেবল খালেদা জিয়াই দায়ী।

বিষয়টিকে ভিন্নভাবে ব্যাখ্যা করে বিএনপিপন্থী এক বুদ্ধিজীবী বলেন, খালেদা জিয়া অল্প শিক্ষিত মানুষ। তাকে যে যেভাবে বুঝিয়েছেন, তিনি সেভাবেই পরিচালিত হয়েছেন। অন্যের বুদ্ধি ধার করার জন্যই তার আজ এই পরিণতি হয়েছে। এছাড়া তিনি যদি সময়মতো তারেক রহমানকে আটকাতে পারতেন, তবে আজকে বিএনপিকে এতটা দুর্নাম সইতে হতো না। খালেদা জিয়া আসলে পুত্রের অপকর্মের কারণে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here