ক্ষুধা মেটাতে পথে পথে ঘুরে চা বিক্রি করে আকাশ

মেহেরপুর প্রতিনিধি:করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে দেশজুড়ে চলছে কঠোর লকডাউন। এ পরিস্থিতিতে কর্মহীন হয়ে পড়েছে নিম্ন আয়ের মানুষ। কাজ না থাকায় জুটছে না খাবার। পরিবার নিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করতে হচ্ছে তাদের।

এমনই একজন মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার নওপাড়ার চা বিক্রেতা সাগর মিয়া। চা বিক্রি করেই চালাতেন পাঁচজনের সংসার। কিন্তু লকডাউনে দোকান বন্ধ থাকায় খাবারের ব্যবস্থা করতে পারেননি। এ অবস্থায় ফ্লাস্ক হাতে ঘুরে ঘুরে চা বিক্রি করছে তার ছেলে ১১ বছর বয়সী আকাশ।

সরেজমিনে দেখা গেছে, নওপাড়া, ভাটপাড়ার বাজারের পথে পথে ঘুরে চা বিক্রি করছে আকাশ। বাজারের চা দোকানগুলো বন্ধ থাকায় তার আয়ও হচ্ছে ভালো। প্রতিদিন প্রায় ২৫০ কাপ চা বিক্রি করে সে।

আকাশ বলে, আমার বাবার চা দোকান ভাটপাড়া বাজারে। কয়দিন দোকান বন্ধ থাকায় বাড়িতে চাল-ডাল নেই। তাই ফ্লাস্কে করে চা বিক্রি করি। প্রতিদিনের আয় দিয়েই সংসার চালাচ্ছি।

নওপাড়া বাজারের হার্ডওয়্যার ব্যবসায়ী মনিরুল ইসলাম বলেন, আকাশের মতো অনেকেই ঘুরে ঘুরে চা বিক্রি করে। দোকানপাট বন্ধ থাকায় মানুষও তাদের কাছ থেকে চা কিনে খায়।

গাংনীর ইউএনও মৌসুমী খানম বলেন, লকডাউনে কোনো মানুষ খাবারের কষ্ট করবে না। এরই মধ্যে জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে দরিদ্র-কর্মহীনদের তালিকা তৈরি করা হয়েছে। আমরা সবার ঘরে খাবার পৌঁছে দেব।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here