লকডাউনেও সড়কে বেড়েছে মানুষ ও ব্যক্তিগত গাড়ি

নিজস্ব প্রতিনিধিঃদেশে করোনার ভয়াবহ পরিস্থিতিতে সরকারঘোষিত এক সপ্তাহের কঠোর লকডাউন আরো সাতদিন বাড়ানো হয়েছে। এই কঠোর বিধিনিষের পঞ্চম দিনেই রাজধনীতে ঢিলেঢালা অবস্থা লক্ষ্য করা গেছে। সড়কে বেড়েছে মানুষ ও যানবাহনের চলাচল।

রাস্তায় আইনশৃঙ্ক্ষলার বাহিনীর সদস্যরা লকডাউন কার্যকরে অবস্থান নিয়েও মানুষ ঠেকাতে পারছে না। প্রতিটি চেকপোস্টে পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে নানান অজুহাত তুলে ধরছে।

এদিকে কঠোর লকডাউনের মধ্যেই সোমবার খুলেছে ব্যাংক বিমা এবং শেয়ার বাজার। এ কারণে বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে সড়কে ব্যক্তিগত যানবাহন ও লোকজনের চলাফেরা বাড়ছে। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর তৎপরতার কারণে সকালে সড়কের বিভিন্ন চেকপোস্টে জটলা দেখা গেছে।

লকডাউনের শুরুতে জরুরি প্রয়োজন ছাড়া অযৌক্তিক কারণে বাইরে বের হওয়ায় রাজধানীতে প্রথম দিন ৫৫০ এবং দ্বিতীয় দিন ৩২০ জন, তৃতীয় দিনে ৬২১ জনকে এবং চতুর্থ দিনে ৬১৮ জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

র‌্যাবের অভিযান ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে দেশব্যাপী বৃহস্পতিবার ১৮২ জনকে জরিমানায় ১ লাখ ৩২ হাজার ৩৯৫ টাকা এবং শুক্রবারের অভিযানে ২১৩ জনের জরিমানায় ২ লাখ ১৫ হাজার ৫৪০ টাকা আদায় করা হয়।

লকডাউনের তৃতীয় দিনে ৩৪৬ জনকে ১ লাখ ৬ হাজার ৪৫০ টাকা জরিমানা করা হয় বলে জানায় ডিএমপি। অপরদিকে লকডাউনের তৃতীয় দিনে নিষেধাজ্ঞা অমান্য করায় সারা দেশে ২৭৭ জনকে প্রায় দুই লাখ টাকা জরিমানা করেছে র‍্যাব। সারাদেশে ৩১টি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে র‍্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটরা এ অর্থদণ্ড করেন।

লকডাউনের চতুর্থ দিনে অযৌক্তিক কারণে বাইরে বের হয়ে সংক্রমণের ঝুঁকি বাড়ানোর অভিযোগে ৬১৮ জনকে গ্রেফতার করেছে ডিএমপি। রাজধানীতে ৪৯৬ গাড়িকে পৌনে ১৩ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। রোববার বিকেলে ডিএমপির গণমাধ্যম শাখার অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার ইফতেখারুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here