পটুয়াখালীতে কঠোর লকডাউন, তৎপর আইনশৃঙ্খলা বাহিনী

 

সাঈদ ইব্রাহিম,পটুয়াখালীঃকরোনা ভাইরাসের সংক্রমন প্রতিরোধে সারা দেশের ন্যায় পটুয়াখালীতে আজ থেকে শুরু হয়েছে কঠোর লকডাউন।সকাল থেকে প্রশাসনের ব্যাপক তৎপরতা লক্ষ করা গেছে।
সরকার ঘোষিত কঠোর বিধি নিষেধ কাযর্কর করতে পটুয়াখালীর মাঠে নেমেছে বাংলাদেশ সেনা বাহিনী, র্যাব, পুলিশ, ম্যজিষ্ট্রেটসহ পুলিশ, আর্ম ব্যাটেলিয়নের সদস্যরাও সাথে রয়েছে।

এদিকে, আজ বৃহস্পতিবার সকাল ৬ টা থেকে শুরু হয়েছে সাত দিনের কঠোর বিধি নিষেধ।
সকাল থেকে বন্ধ রয়েছে জেলাসহ উপজেলা শহরের সকল দোকানপাট।শহরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ন স্থানে অবস্থান নিয়ে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা, বিধি নিষেধ কায্যকর করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন তারা। জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের পক্ষে মাইকিং করে জনসাধারনকে অপ্রয়োজনে ঘর থেকে বের হতে নিষেধ করা হচ্ছে। কিন্তু নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মানুষ মাস্কহীনভাবে অপ্রয়োজনে ঘর থেকে বাইরে বের হচ্ছেন।বিনা কারনে বাইরে বের হলে করা হচ্ছে জরিমানা আদায়। বন্ধ রয়েছে বাসসহ সকল ধরনের ইঞ্জিনচালিত যানবাহন।

বাজারে মানুষের তেমন উপস্থিতি লক্ষ করা যায়নি। তবে এখন পর্যন্ত উন্মুক্ত স্থানে স্থানান্তরিত করা হয়নি মাছ ও সবজি বাজার।
পুলিশের পক্ষ থেকে প্রতিটি হাটবাজার বিধি নিষেধের আওতায় রাখতে আলাদাভাবে কাজ করা হচ্ছে। অপরদিকে, গ্রাম পুলিশের সমন্বয়ে গ্রামে গ্রামে হাটবাজার মনিটরিং করা হচ্ছে।

করোনা ভাইরাসের সংক্রমন উদ্বেগজনক হারে বেড়ে যাওয়ায় আগামী ৭ জুলাই মধ্য রাত পর্যন্ত এই বিধি নিষেধ কাযর্কর থাকবে।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানাগেছে, গত ২৪ ঘন্টায় ১০৯ জনের নমুনা পরীক্ষায় সনাক্ত ২০ জন। কভিড শুরু হতে এ পর্যন্ত জেলায় নমুনা পরীক্ষা হযেছে মোট-২২৫০৩ টি। মোট সনাক্ত ২৪৮৫ জন। এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছন মোট- ২২৯৭ জন, আইসোলেশনে চিকিৎসা নিচ্ছেন- ১৩১ জন, হাসপাতালে ০২ জন এবং হোমে – ১২৯ জন। মোট মৃতঃ ৫৭ জন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here