প্রতিবেশীকে দেখতে গিয়ে হাজতে থাকতে হলো ৪ ঘণ্টা

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি:পুলিশের অনুমতি নিয়ে হাজতে আসামির সঙ্গে দেখা করতে যান রুহুল আমিন। উল্টো তাকেই চার ঘণ্টা হাজতে থাকতে হয়েছে। এমনই ঘটনা ঘটেছে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ ভুলতা পুলিশ ফাঁড়িতে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে রূপগঞ্জ প্রেস ক্লাবে সাংবাদিকদের কাছে এ অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী রুহুল আমিন। এর আগে বুধবার বিকেলে এ ঘটনা ঘটে।

রুহুল আমিন জানান, বুধবার বিকেলে রাজু নামের তার এক প্রতিবেশী ছোট ভাইকে গ্রেফতার করেন ভুলতা পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ নাজিম উদ্দিন। রাজু একজন কাপড় ব্যবসায়ী। বিকেল ৪টার দিকে তাকে দেখতে ফাঁড়িতে যান রুহুল আমিন। সেখানে সাক্ষাতের জন্য তাকে অনুমতি দেন কর্মরত কনস্টেবল।

বিষয়টি দেখে রুহুল আমিনকে কোনো কারণ ছাড়াই চড়-থাপ্পড় মারেন ভুলতা ফাঁড়ির ইনচার্জ নাজিম উদ্দিন। একপর্যায়ে ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে হাজতে আটকে রাখেন। রাত ৮টার দিকে অনেক কাকুতি-মিনতির পর রুহুল আমিনকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

এ ব্যাপারে ভুলতা পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ নাজিম উদ্দিন মজুমদার বলেন, আমার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা ও বানোয়াট। পুলিশ ফাঁড়িতে এ ধরনের কোনো ঘটনা ঘটেনি।

রূপগঞ্জ থানার ওসি এএফএম সায়েদ বলেন, ফুটপাতে চাঁদাবাজির অভিযোগে রাজুকে গ্রেফতার করা হয়েছে। রুহুল আমিনও তার সহযোগী ছিলেন। এ কারণে তাকে রাজুর সঙ্গে দেখা করতে দেওয়া হয়নি। তবে কাউকে হাজতে আটকে রাখার কোনো ঘটনা ঘটেনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here