স্বজনদের কান্নায় ভারী হাসপাতাল, আহত অনেক পথচারী

নিজস্ব প্রতিনিধিঃরাজধানীর মগবাজারে একটি ভবনে বিকট শব্দে বিস্ফোরণে এখন পর্যন্ত ছয়জন নিহত এবং আহত ও দগ্ধের সংখ্যা অর্ধশতাধিক বলে জানা গেছে। আহত ও দগ্ধদের মধ্যে ২৯ জনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও ১০ জনকে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়েছে। আহতদের স্বজনদের কান্নায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক ইনস্টিটিউট এলাকার বাতাস ভারী হয়ে উঠছে। একটু পর পর সাইরেন মগবাজার থেকে অ্যাম্বুলেন্স আসছে আহতদের নিয়ে। স্বজনরা খোঁজছেন আপনজনদের। আর চিকিৎসকরা ব্যস্ত হয়ে পড়ছেন চিকিৎসা দিতে। অনেক আহত ব্যক্তি ছিলেন পথচারী। গণমাধ্যমে বিস্ফোরণের খবর দেখে হাসপাতালে এসে স্বজনদের খুঁজছেন। তাদের আহাজারি ও কান্নায় পরিবেশ ভারী হয়ে আছে।
রোববার সন্ধ্যা ৭টার দিকে বড় মগবাজার এলাকার আউটার সার্কুলার রোডের ৭৯ নম্বর ভবনে এই বিস্ফোরণ ঘটে। কীভাবে সেখানে বিস্ফোরণ হলো তাৎক্ষণিকভাবে তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তবে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে- যে ভবন থেকে বিস্ফোরণের সূত্রপাত তার দোতলায় একটি ইলেকট্রনিক কোম্পানির গুদাম রয়েছে। ওই গুদামে থাকা এসি বা ফ্রিজ থেকে আগুনের সূত্রপাত হতে পারে।

ফায়ার সার্ভিসের রমনা স্টেশনের স্টেশন অফিসার ফয়সালুর রহমান জানান, শীতাতপ নিয়ন্ত্রণ যন্ত্রে বিস্ফোরণের কথা প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হলেও ঠিক কোথায় থেকে বিস্ফোরণ ঘটলো তা তাৎক্ষণিভাবে নিশ্চিত হওয়া যায়নি। ওই বিস্ফোরণে ঘটনাস্থল থেকে মোট ৬ জনকে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করেছি। আহত ও নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে।

পথচারী জান্নাত আরাসহ কয়েকজন প্রত্যক্ষদর্শী বলেন, তারা ঘটনাস্থলের অদূরে একটি ভবনে নীচে দাঁড়িয়ে ছিলেন। ওই সময় বিকট শব্দ শুনতে পান তারা। তারা যে ভবনের নিচে ছিলেন, বিস্ফোরণের সময় সেটির কিছু পলেস্তারা ধসে বৈদ্যুতিক ট্রান্সফরমারের ওপর পড়ে। এরপর ট্রান্সফর্মার বিস্ফোরণে আগুন ধরে যায়। সেই আগুন উড়ালসড়কের ওপরে ও নিচে যাত্রীবাহী বাসে ছড়িয়ে পড়ে। এতে হতাহতের ঘটনা ঘটে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here