কবরস্থান নিয়ে সংঘর্ষ: মূলহোতাসহ গ্রেফতার ৩

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি:চট্টগ্রাম নগরীর বাকলিয়ায় কবরস্থানে সাইনবোর্ড লাগানো নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনার মূলহোতা এয়াকুবসহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শুক্রবার দুপুরে এ তথ্য জানান নগর পুলিশের ডিসি (দক্ষিণ) বিজয় বসাক।

এর আগে, মিরসরাই উপজেলার জোরারগঞ্জ ও রাজধানীর পল্টন থানা এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতাররা হলেন- বাকলিয়ার মৌলভী আব্দুল গফুর রোডের হাজী মো. ইসলাম সওদাগরের ছেলে মো. এয়াকুব, বলিরহাট ঘাটকুল মাঝির বাড়ির হাবিবুর রহমান ওরফে আবুর ছেলে মো. ওসমান আলী ও সানোয়ারা স্কুল এলাকার হাজী মালেকুজ্জামান সওদাগর বাড়ির হাজী মুন্সী মিয়ার ছেলে মো. মাসুদ আলম।

ডিসি বলেন, ভিডিও ফুটেজ দেখে ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের শনাক্ত করা হয়। পরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মিরসরাইয়ের জোরারগঞ্জ থেকে মূলহোতা এয়াকুবকে এবং রাজধানীর পল্টন থানা এলাকা থেকে ওসমান আলী ও মাসুদ আলমকে গ্রেফতার করা হয়।

ডিসি আরো বলেন, আব্দুল লতিফ হাটখোলা চাঁন্দগাজী রোড এলাকার খালের দক্ষিণ পাশে অস্ত্র লুকিয়ে রেখেছিল আসামিরা। সেখান থেকে ম্যাগাজিনসহ একটি বিদেশি পিস্তল, দুই রাউন্ড গুলি ও দুটি কিরিচ উদ্ধার করা হয়। অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় নতুন করে মামলার পর শুক্রবার তাদের আদালতে পাঠানো হয়েছে।

দীর্ঘদিন ধরে বড় মৌলভী কবরস্থান নিয়ে স্থানীয় বড় মৌলভী বাড়ি ও ইয়াকুব আলীর লোকজনদের মধ্যে বিরোধ চলছিল। ১১ জুন সকালে কবরস্থানে নতুন সাইনবোর্ড লাগানো নিয়ে ফের উত্তেজনা দেখা দেয়। এর একপর্যায়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষে চারজন গুলিবিদ্ধসহ আহত হন মোট ১৩ জন।

এ ঘটনায় বাকলিয়া থানায় মামলা করেন বড় মৌলভী বাড়ির বাসিন্দা সাইফুল্লাহ মাহমুদ। মামলার পর জাহিদুল আলমসহ এ পর্যন্ত ১০ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here