দুদিন চেষ্টার পর ২৩০০ টাকায় বিক্রি হলো দেড় মণের কাঁঠাল

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি:এক কাঁঠালের ওজন ৬৫ কেজি। আর এ কাঁঠালটি দেখতে গত দুদিন ধ‌রে ছিল ক্রেতা আর উৎসুক মানু‌ষের ভিড়। অবশেষে কাঁঠালটি দুই হাজার ৩শ’ টাকায় বিক্রি হলো।

বুধবার দুপুরে কাঁঠাল‌টি কি‌নে নেন কিশোরগঞ্জ শহরের পুরানথানা এলাকার ইসলামিয়া সুপার মার্কেটের এক মোবাইল ব্যবসায়ী।

সোমবার কাঁঠালটি বিক্রির জন্য পুরানথানা বাজারে নিয়ে আসেন কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার মহিনন্দ ইউনিয়নের হাজরাহাটি গ্রামের বাসিন্দা ও পুরানথানা এলাকার ফল ব্যবসায়ী উজ্জ্বল মিয়া। তিনি নরসিংদীর বেলাব উপজেলার বিল্লালের মোড় এলাকার এক ব্যক্তির কাছ থেকে কাঁঠালটি কেনেন।

উজ্জ্বল মিয়া বলেন, ‘আমি মূলত কাঁঠাল ব্যবসায়ী না। অন্য ফলের ব্যবসা করি। বেলাব এলাকায় একটি গাছে বড় বড় ছয়টি কাঁঠাল দেখতে পাই। এরপর মালিকের সঙ্গে যোগাযোগ করে সবচেয়ে বড় কাঁঠালটি কিনে আনি। কয়েকজন মিলে বিশেষ কৌশলে গাছ থেকে কাঁচা কাঁঠালটি নামানো হয়। দুদিন ধরে বিক্রির জন্য পুরানথানা বাজারে রাখা হয়। অবশেষে কাঁঠালটি বিক্রি করতে পেরেছি। এটা আমার জীবনে স্মরণীয় হয়ে থাকবে।’

স্থানীয়রা জানায়, ৬৫ কে‌জি ওজ‌নের কাঁঠাল সচরাচর দেখা যায় না। তাই কাঁঠালটি দেখ‌তে পুরানথানা এলাকায় ভিড় ক‌রেন অসংখ্য মানুষ। ‌ত‌বে কাঁঠাল‌টি কত টাকায় কেনা হ‌য়ে‌ছিল সে‌টি বল‌তে চাননি বি‌ক্রেতা উজ্জ্বল মিয়া।

করিমগঞ্জ উপজেলার আশুতিয়াপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হাদিউল ইসলাম কাঞ্চন বলেন, বড় কাঁঠালের কথা শুনে দেখতে এসেছি। কেনার ইচ্ছা ছিল। কিন্তু একা এত বড় কাঁঠাল কিনে বাড়িতে নেয়ার সাহস পাইনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here