না ঘষে মিনিটেই কাঁঠালের বিচি পরিষ্কার ও সংরক্ষণ পদ্ধতি

লাইফস্টাইল ডেস্ক:কাঁঠাল খেতে ভালোবাসেন না এমন মানুষ খুব কমই আছে। মিষ্টি ও রসালো কাঁঠাল পুষ্টিগুণেও অনন্য। শুধু কাঁঠালই নয়, এর বিচিও খেতে সুস্বাদু ও পুষ্টিকর। কাঁঠালের বিচি দিয়ে নানা পদের খাবারও তৈরি করে খেয়ে থাকেন অনেকেই।

তবে এর গায়ে লেগে থাকা লাল চামড়া পরিষ্কার করতে অনেকটা সময় লাগে এবং কষ্টকরও। তাইতো অনেকেই কাঁঠালের বিচি পরিষ্কারের ঝামেলার জন্য তা খেতেই চান না। এর জন্য এর পুষ্টি থেকেও বঞ্চিত হয়।

এক্ষেত্রে কাঁঠালের বিচি পরিষ্কার করার সঠিক কৌশলটি জানা থাকলে এই কঠিন কাজটিও আপনার কাছে সহজ হয়ে যাবে। এই পদ্ধতিতে আপনি মিনিটেই কাঁঠালের বিচির গায়ে থাকা লাল চামড়া পরিষ্কার করতে পারবেন। আর সংরক্ষণও করতে পারবেন। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক কাঁঠালের বিচি পরিষ্কার ও সংরক্ষণ পদ্ধতি-

>> কাঁঠালের বিচির সাদা খোসা ছাড়িয়ে ঘণ্টাখানেক পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। তারপর পাটায় ঘষে কিংবা তারের মাজুনি দিয়ে ডলেও বিচির লাল চামড়া সহজেই তুলে নিতে পারেন।

>> প্রথমে কাঁঠালের বিচির উপরের সাদা খোসা ছাড়িয়ে নিন। সব খোসা ছাড়ানো হয়ে গেলে, একটি পাত্রে পানি নিয়ে তাতে বিচিগুলো দিয়ে দিন। পানি এমনভাবে দেবেন যাতে সব বিচিগুলোই পানির ভেতর ডুবে থাকে। এবার পাত্রটি চুলায় বসিয়ে দিন। চুলায় হাই ফ্লেমে দিয়ে বলক আশা পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। বলক আসার সঙ্গে সঙ্গে নামিয়ে পানি ছেঁকে নিন। এবার সামান্য ডলা দিয়ে দেখুন, লাল চামড়া সহজেই উঠে আসবে। চাইলে চালনিতে ডলা দিতে পারেন। বেশি করে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। দেখবেন একদম কম সময়ে সব বিচি পরিষ্কার হয়ে গেছে। এই বিচি চাইলে আপনি সংরক্ষণ ও করতে পারেন।

সংরক্ষণ পদ্ধতি

পরিস্কার করা বিচি ভালো করে পানি ঝরিয়ে নিন। ফ্যানের বাতাসে ছড়িয়ে শুকিয়ে নিন। এবার এয়ারটাইট বক্স বা জিপ লকার বচে ভরে ৬ থেকে ৭ মাস সংরক্ষণ করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here