বিয়ের দুইদিন পর ধর্ষণের শিকার নববধূ, স্বামী গ্রেফতার

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি:বিয়ের দুইদিন পর স্বামীর সহযোগিতায় এক নববধূকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী ওই নববধূর ভাই বাদী হয়ে থানায় মামলা করেছেন। মঙ্গলবার (২৫ মে) কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী উপজেলার কেদার ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে। ওই নববধূকে বর্তমানে ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারে রাখা হয়েছে।

ভুক্তভোগী নববধূর ভাই জানান, গত রোববার (২৩ মে) কেদার ইউনিয়নে তার বোনের বিয়ে হয়। মঙ্গলবার (২৫ মে) বেলা ১১টার দিকে নববধূ তার স্বামী ও স্বামীর ভগ্নিপতি বাবু মিয়াসহ বাড়ির পাশে এক চাচার বাড়িতে বেড়াতে যান। এ সময় ওই বাড়ি ফাঁকা পেয়ে স্বামীর সহযোগিতায় নববধূকে ধর্ষণ করে বাবু।

পরে ভুক্তভোগী নববধূ ঘটনাটি তার পরিবারকে জানালে নববধূর বড় ভাই বুধবার (২৬ মে) সকালে কচাকাটা থানায় মামলা করেন। পুলিশ ওই নববধূকে উদ্ধার করে ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারে নেয় এবং তার স্বামীকে গ্রেফতার করে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সম্পূর্ণ পরিকল্পিতভাবে স্বামীর সহযোগিতায় নববধূকে ধর্ষণ করেন বাবু। ঘটনার পর থেকে তিনি পলাতক রয়েছেন।

পুলিশ আরো জানায়, জিজ্ঞাসাবাদে অভিযুক্ত স্বামী তার স্ত্রী ধর্ষণের শিকার হওয়ার কথা স্বীকার করলেও এ ব্যাপারে নিজের সহযোগিতার কথা অস্বীকার করেছেন। তাকে বাড়ির বাইরে পাঠিয়ে তার অজান্তে দুলাভাই নববধূকে ধর্ষণ করেছে বলে দাবি করেছেন তিনি।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে কচাকাটা থানার ওসি মাহাবুব আলম জানান, এ ঘটনায় ভুক্তভোগীর ভাই বাদী হয়ে মামলা করেছেন। অভিযুক্ত স্বামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মূল অভিযুক্ত বাবু মিয়াকে গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here