১৬ ‘ইমো হ্যাকার’ আটক

রাজশাহী  প্রতিনিধিঃইমো আইডি হ্যাকিংয়ের মাধ্যমে প্রতারণামূলকভাবে অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে ১৬ জন ইমো হ্যাকারকে আটক করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। মঙ্গলবার (২৫ মে) নাটোরের লালপুর থেকে তাদের আটক করা হয়।

বুধবার (২৬ মে) র‌্যাব-৫ (রাজশাহী) এর পক্ষ থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, রাজশাহীর সিপিসি-২, নাটোর ক্যাম্পের একটি আভিযানিক দল ২৫ মে সন্ধ্যা ৭টায় গোয়েন্দা তথ্যের ভিক্তিতে নাটোর জেলার লালপুর থানাধীন মোহরকয়া গ্রামে অভিযান চালিয়ে ১৬ জন ইমো হ্যাকারকে আটক করে। এ সময় তাদের কাছ থেকে হ্যাকিংয়ের কাজে ব্যবহৃত ১টি ল্যাপটপ, ৬টি মোবাইল ফোন, ১১টি সিমকার্ড ও দুইটা রাউটার জব্দ করা হয়।

আটকরা হলেন- মো. পাপ্পু আলী (১৯), মো. আজিম আলী (১৯), মো. অস্তর উদ্দিন বিন্নু (১৮), মো. স্বাধীন (১৮), মো. সজীব আলী (১৮)।

পরবর্তীতে আটকদের দেওয়া তথ্যমতে নাটোর জেলার লালপুর থানাধীন মোহরকয়া ভাঙ্গাপাড়া গ্রামে অভিযান পরিচালনা করে মো. ফরিদ উদ্দিন (২৫), মো. রবিউল ইসলাম (২২), মো. মোহন সরকার (২২), মো. শাহপরান সরকার (২০), মো. আশিকুর রহমান বিন্টু (২২), মো. মহিন (২১), মো. শাহাবুল ইসলাম (৩৫), মো. রুবেল হোসেন (২৬), মো. আলম হোসেন (৩৭), মো. সিরাজুল ইসলাম (৩০) ও মো. নাজিম আলীকে (৩০) আটক করা হয।

এ সময় তাদের কাছে থেকে একটি ট্যাবলেট কম্পিউটার। সিমকার্ডসহ ২১টি মোবাইল ফোন, ৬টি গ্যাসলাইটার, ২ রোল অ্যালুমনিয়াম ফয়েল পেপার, নগদ এক হাজার ২০০ টাকা জব্দ করা হয়।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আটকরা জানান, তারা দীর্ঘদিন ধরে ইলেকট্রনিক ডিভাইস ও ইন্টারনেট সংযোগ ব্যবহার করে প্রবাসীসহ দেশের বিভিন্ন প্রান্তের ‘ইমো’ ব্যবহারকারীদের ইমো হ্যাক করে পরবর্তীতে ভিকটিমের পরিচিতজনদের কাছ থেকে প্রতারণাপূর্বক মোবাইল ফিন্যান্সিং সাভির্সের মাধ্যমে অর্থ হাতিয়ে নেয়।

র‌্যাব জানায়, মধ্যপ্রাচ্য প্রবাসীদের মধ্যে বেশিরভাগই দেশে তাদের স্বজনদের সাথে যোগাযোগ করতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইমো অ্যাপ ব্যাবহার করে থাকেন। এরই সুযোগে কিছু সংঘবদ্ধ হ্যাকার চক্রের সদস্যরা প্রবাসিদের এই ইমো অ্যাপের অ্যাকাউন্ট হ্যাক করে বিপুল পরিমাণ অর্থ হাতিয়ে নেয।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আটকদের বিরুদ্ধে নাটোর জেলার লালপুর থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ২০১৮ এ মামলা করা হয়েছে

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here