ছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টায় কারাগারে শিক্ষক

ফেনী প্রতিনিধি : ফেনীর দাগনভূঞায় ৫ম শ্রেনীর এক ছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে রমজান আলী শাহিন (৩৩) নামের এক সহকারী শিক্ষককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শনিবার (২২ মে) রাতে ওই কিশোরীর মা বাদী হয়ে দাগনভূঞা মডেল থানায় মামলা দায়ের করলে পুলিশ অভিযুক্ত শিক্ষককে গ্রেফতার করে রবিবার (২৩ মে) আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করেন।

গ্রেফতারকৃত শিক্ষক দাগনভূঞা উপজেলার জায়লস্কর ইউনিয়নের বারাহী গোবিন্দ গ্রামের ওয়াহেদ মিঝি বাড়ির হারিফ আহাম্মদের ছেলে। তিনি উত্তর বারাহী গোবিন্দ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক।

ভূক্তভোগী কিশোরীর পরিবার জানায়, ২২ মে শনিবার দুপুরের দিকে ওই কিশোরীকে ঘরে একা পেয়ে ধর্ষনের চেষ্টা করে শাহিন, তাৎক্ষণিক কিশোরী জোরপূর্বক ঘর থেকে বের হয়ে ঘটনাটি লোকজনকে জানায়। এর আগে ২০২০ সালের ২৩ আগস্ট বাড়ির পাশে বাগানে নিয়ে ওই কিশোরীকে জোরপূর্বক ধর্ষন করে শিক্ষক শিক্ষক শাহীন !
তৎকালীন সময়ে মান সম্মানের ভয়ে পরিবারের কেউ মুখ খুলেনি, বিষয়টি নিরবে সয়ে গেছেন।

স্থানীয় জায়লস্কর ইউপি চেয়ারম্যান মামুনুর রশিদ মিলন জানান, ঘটনাটি শুনেই তাৎক্ষণিক রাত ১২টার দিকে আমি ভিকটিমের বাড়িতে যাই, ভিকটিম ও আশপাশের লোকজনের সাথে কথা বলে ঘটনাটি সত্য মনে হয়েছে। আমরা সবাই এর বিচার চাই।

দাগনভূঞা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ ইমতিয়াজ আহমেদ জানান, কিশোরীকে ধর্ষণ চেষ্টার ঘটনায় তার মা বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করে। পুলিশ অভিযুক্ত শিক্ষককে গ্রেফতার করে রবিবার আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here