কার ওপর অভিমান করেছিলেন মুনিয়া?

নিজস্ব প্রতিনিধিঃমোসারাত জাহান মুনিয়ার আত্মহত্যা প্ররোচনার মামলার তদন্ত শেষ পর্যায়ে। তদন্তকারী কর্মকর্তাদের সূত্রে জানা গেছে, চলতি মাসেই এ ব্যাপারে তদন্ত রিপোর্ট চূড়ান্ত হতে পারে। একাধিক সূত্র জানাচ্ছে আত্মহত্যা এই মামলাটি তদন্তে ৫টি উত্তর খোঁজা হয়েছে-

১. মুনিয়া কি আত্মহত্যা করেছে না তাকে হত্যা করা হয়েছে।

 

২. মুনিয়া মৃত্যুর আগে কোন ডেথ নোট লিখেছেন কিনা।

৩. মৃত্যুর আগে মুনিয়া কার কার সাথে যোগাযোগ করেছিলেন।

৪. মুনিয়াকে কেউ চাপ দিয়েছিল কিনা।

৫. মুনিয়া কারো ওপর অভিমান করেছিল কিনা।

প্রথম প্রশ্নের উত্তরে তদন্তের কিছু নেই এটি ময়নাতদন্ত রিপোর্টের ওপর নির্ভরশীল। দ্বিতীয় প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে গিয়ে তদন্তকারী কর্মকর্তারা দেখেছেন, মৃত্যুর আগে মুনিয়া কোন ডেথ নোট লিখে যাননি।

তৃতীয় প্রশ্নের উত্তর, তদন্তকারী কর্মকর্তারা দেখেছেন, মৃত্যুর আগে মুনিয়া বার বার মামলার বাদী নুসরাতের সঙ্গে যোগাযোগ করেছিলেন। মুনিয়া বার বার নুসরাতকে তাড়াতাড়ি ঢাকায় আসার অনুরোধ জানিয়েছিলেন। এসময় নুসরাত তাকে আসছি, রওনা দিচ্ছি বলে শান্তনা দিচ্ছেন। বিভিন্ন সূত্র থেকে প্রাপ্ত তথ্যে দেখা যায়, কুমিল্লা থেকে ঢাকা আসতে নুসরাত ইচ্ছা করে বিলম্ব করেছেন। এই বিলম্বের কারণ হিসেবে এজাহারে কোন কিছু উল্লেখ নেই।

তবে বাদী বিভিন্ন জায়গায় বলেছেন, ড্রাইভারের কারণে তার দেরি হয়েছে। এই দেরির সঙ্গে মুনিয়ার মৃত্যুর কোন সংশ্লিষ্টতা আছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। সূত্রগুলো বলছে, প্রথম দিকে মুনিয়া ছিলেন শান্ত স্বাভাবিক। নুসরাতের বিলম্বের কারণেই আস্তে আস্তে অধৈর্য হয়ে ওঠে মুনিয়া।

মৃত্যুর আগে মুনিয়াকে কেউ চাপ দিয়েছিল কিনা, এ বিষয়েও তদন্ত হয়েছে। তদন্তে দেখা গেছে, মৃত্যুর আগে মুনিয়াকে কেউ কোন প্রকার চাপ দেয়নি। বিভিন্ন সূত্র বলছে, মুনিয়া যখন বার বার তার বড় বোনকে ফোন করেছিলেন আসার জন্য এবং নুসরাত নানা অজুহাতে দেরি করছিলেন। এসময় মুনিয়া অধৈর্য হয়ে ওঠেন। বড় বোনকে সবচেয়ে ভালো চিনতেন মুনিয়া। নুসরাতের বিলম্ব, কালক্ষেপন কি মুনিয়াকে অভিমানী করে তুলেছিল? তদন্তে এটি বড় প্রশ্ন। নুসরাত যদি ঠিক সময়ে ঢাকায় আসতো তাহলে কি মুনিয়া আত্মহত্যা করতো? এটি এখন তদন্তে মুখ্য ইস্যু হয়ে উঠেছে।

অপরাধ বিজ্ঞানীরা বলছেন, মুনিয়াকে তার বোন ব্যবহার করতেন। এ কারণে মুনিয়া হয়তো ভেবেছিলেন, তাকে নিয়ে নতুন ফন্দি আটার জন্যই নুসরাত দেরি করছে। নুসরাত বিলম্ব করে কি মুনিয়ার মৃত্যুকে ত্বরান্বিত করেছিলেন? নুসরাতের ওপর অভিমানই কি মুনিয়ার মৃত্যুর কারণ? এই প্রশ্নই এখন মুখ্য হয়ে উঠছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here