বিয়ে করায় স্বামীর গোপনাঙ্গ কেটে দিল স্ত্রী

সাঈদ ইব্রাহিম,পটুয়াখালীঃ পটুয়াখালীর সদর উপজেলার ২ নং বদরপুর ইউনিয়নের হকতুল্লাহ এলাকায় গতকাল মধ্য রাতে স্বামীর বিশেষ অঙ্গ কেটে নিয়েছে স্ত্রী। ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে স্ত্রী হাসিনা বেগমকে আটক করেছে সদর থানা পুলিশ।রাতে স্বামীর পুরুষাঙ্গ কেটে নেয়ার পরও তাকে হাসপাতালে না নেয়ার অভিযোগ স্ত্রী হাসির বিরুদ্ধে। পল্লী বিদ্যুৎ এর লেবার সর্দার ইব্রাহীমের মেয়ে হাসির সাথে প্রায় ১৫ বছর পূর্বে কবিরের সাথে বিবাহ হয়, তাদের ঘরে দুটি সন্তান রয়েছে একজনের বয়স (১৩) এবং অপর জনের (১) বছর।এই অবস্থায় প্রথম স্ত্রীর অমতে গোপনে আরও একটি বিয়ে করে কবির। সম্প্রতি এ ঘটনা জেনে যায় প্রথম স্ত্রী। সেই থেকেই দুজনের মধ্যে প্রায়ই কথা কাটাকাটি ও ঝগড়া লেগে থাকতো। কবিরের ভাই মাসুদ আরও জানান, দ্বিতীয় স্ত্রী কবিতা আক্তার গর্ভবতী-এমন কথা দুইদিন আগে প্রথম স্ত্রী জানতে পারে। গত মঙ্গলবার বিকালে দ্বিতীয় স্ত্রীর কাছ থেকে প্রথম স্ত্রীর বাসায় আসেন কবির তালুকদার। রাতে খাবার খেয়ে দুইজনে ঘুমাতে যান। এক পর্যায়ে রাত আনুমানিক ১১টা থেকে সাড়ে ১১টার দিকে কবির ঘুমিয়ে পড়ে। মাসুদ জানায়, রাত দুটার দিকে তোয়ালে পেঁচিয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় কবির আমার বাসায় হাজির হয়।এবং তাকে দ্রুত চিকিৎসার জন্য পটুয়াখালী সদর হাসপাতালে নিয়ে আসি। এ সময় রোগীর পরিস্থিতি ভালো না হওয়ায় তাকে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করেন। আহত কবির হকতুল্লাহ এলাকার মোছলেম তালুকদারের ছেলে। তিনি পেশায় পল্লী বিদ্যুতের ফোরম্যান হিসাবে কর্মরত। সদর থানার ওসি আখতার মোর্শেদ জানান, কবির তালুকদার বরিশালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। রাতেই স্ত্রীকে আটক করা হয়েছে, মামলার প্রস্তুতি চলছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here