ইন্টারনেট সংযোগ দিতে গিয়ে ২জনের মর্মান্তিক মৃত্যু

ময়মনসিংহ প্রতিনিধিঃময়মনসিংহের ভালুকায় ইন্টারনেট সংযোগ দিতে গিয়ে পল্লী বিদ্যুতের লাইনে জড়িয়ে বিদ্যুৎপৃষ্ট হয়ে আলফাজ (২২) নামে এক ইন্টারনেট ব্যবসায়ী ও অনিত (২০) নামে তার এক কর্মচারীর মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আলী হোসেন নামে আরও একজন। তিনি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। বৃহস্পতিবার (২৯ এপ্রিল) রাত ১১টায় উপজেলার হবিরবাড়ী ইউনিয়নের জামিরদিয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ইন্টারনেট ব্যবসায়ী আলফাজ আহাম্মেদ শেখ জামিরদিয়া এলাকার আলিম উদ্দিনের ছেলে ও নিহত অমিত হাসান বরিশাল হিজলা ফুলচর হরিনাথপুর এলাকার আবুল কালামের ছেলে। এ ঘটনায় নিহত আলফাজের বাবা আলিম উদ্দিন আহত হয়েছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১১টায় উপজেলার জমিরদিয়া এলাকার তানভীরের বাড়িতে ইন্টারনেট সংযোগ দিতে আসেন ইন্টারনেট ব্যবসায়ী আলফাজ ও তার কর্মচারী অমিত। প্রথমে কর্মচারী অমিত তানভীরের ঘরের টিনের চালায় উঠলে তিনি বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে যান। এ সময় নিচ থেকে আলফাজ কর্মচারী অমিতকে ডাকাডাকি করলেও তিনি সারা না দেয়ায় তাকে বাঁচাতে আলফাজও টিনের চালে উঠে বিদ্যুতের তারে জাড়িয়ে যান। পরে ঘটনা টের পেয়ে আলফাজের পিতা আলিম উদ্দিন তাদেরকে উদ্ধার করতে গিয়ে তিনিও গুরুতর আহত হন। আশঙ্কাজনক অবস্থায় আহতদের উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার আলফাজ ও অমিতকে মৃত ঘোষণা করেন। আহত আলিম উদ্দিনকে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে ময়মনসিংহ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ এর জিএম শাহজাহান কবির বলেন, ভিকটিমের অসাবধানতার কারণে গভীর রাতে এই দুর্ঘটনাটি ঘটেছে। এক্ষেত্রে অপরিকল্পিত ভাবে সংযোগ লাইনের নিচ দিয়ে বসতবাড়ী নির্মাণ করায় টিনের উপর দিয়ে লাইনটি গেছে। বাড়ীওয়ালা যদি বিষয়টি আমাদেরকে জানাতো তবে আমরা লাইনটি সরিয়ে দিতাম।

ঘটনাস্থল পরিদর্শনকারী ভালুকা থানার এস আই আবুল কালাম জানান, এ ব্যাপারে নিহতের স্বজনরা একটি অপমৃত্যু মামলা করেছে, মামলা নং-৩০ তারিখ-৩০/০৪/২০২১। পরবর্তীতে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। লাশ দুটো বর্তমানে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here