হাঁসে ধান খাওয়া নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষে আহত ২৭

ময়মনসিংহ প্রতিনিধিঃ ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার চণ্ডীপাশা ইউনিয়নের চারকান্দা গ্রামে বৃহস্পতিবার (২৯ এপ্রিল) সকালে হাঁস ধানক্ষেতে যাওয়াকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষে কমপক্ষে ২৭ জন আহত হয়েছে। উভয় পক্ষের আহতদের উদ্ধার করে প্রথমে নান্দাইল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। সেখানে ১০ জনের অবস্থা গুরুতর বলে জানা গেছে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, ওই গ্রামের মো. আজিজুলের বেশ কয়েকটি হাঁস প্রতিবেশী সুরুজ আলীর পাকা ধানক্ষেতে ঢুকে ধানের ক্ষতি করে। গত মঙ্গলবার এ ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে ক্ষেতের মালিক সুরুজ আলীর লোকজন হাঁসের মালিককে বিভিন্ন ধরনের গালাগালসহ দেখে নেওয়ার হুমকি দেয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে হাঁসের মালিক আজিজুল গালাগালের প্রতিবাদ জানাতে সুরুজ আলীর বাড়িতে গিয়ে তাঁকে খোঁজ করেও পায়নি। ওই সময় আজিজুলের ভাই মামুনের ওপর উল্টো হামলা করে বসে সুরুজ আলীর লোকজন। এতে পরিস্থিতি উত্তপ্ত হলেও স্থানীয় লোকজনের হস্তক্ষেপে ঘটনা বেশিদূর গড়ায়নি। ঘটনাটি নিয়ে চাপা ক্ষোভ ও উত্তেজনা বিরাজ করলে স্থানীয় ইউপি সদস্য হারুন অর রশিদ উভয় পক্ষের কাছে গিয়ে ঘটনাটি মীমাংসার কথা বলে শান্ত করেন।

ইউপি সদস্য হারুন জানান, আজ বৃহস্পতিবার সকালে তিনি স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের নির্দেশে সালিসের তারিখ জানাতে ও ঘটনাটি নিয়ে আর বাড়াবাড়ি না করতে উভয় পক্ষের বাড়িতে গিয়ে ফিরে আসার সময় একে অপরের ওপর আক্রমণ শুরু করে। এতে উভয় পক্ষের কমপক্ষে ২৭ জন আহত হয়। পরে তাঁদের উদ্ধার করে নান্দাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠানো হয়।

নান্দাইল থানার ওসি মিজানুর রহমান আকন্দ জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here