বরিশালে যুবদলের কর্মসূচিতে পুলিশের লাঠিচার্জ

নিজস্ব প্রতিনিধিঃবরিশালে জেলা যুবদল পুলিশের বাধা ও লাঠিচার্জের মুখে কেন্দ্রীয় কর্মসূচি ভন্ডুল হয়ে গেছে। বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের কর্মসূচি প্রতিহত করতে সদর রোডস্থ জেলা ও মহানগর বিএনপি দলীয় কার্যলয়, অশ্বিনী কুমার টাউন হল চত্বর, প্রেস ক্লাব গলি, ফকির বাড়িসহ বিভিন্ন স্থানে বিপুল সংখ্যক আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৫) মার্চ বেলা ১২টার দিকে সুনামগঞ্জে হিন্দু পল্লীতে হামলা ও ভাঙচুর লুটপাটের ঘটনায় বিএনপি কেন্দ্রীয় ভারপ্রাপ্ত চেযারম্যান তারেক রহমানকে প্রধান আসামি করে জেলা জজ আদালতে মামলা করার প্রতিবাদে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসাবে বরিশাল জেলা যুবদল নগরীর সাংবাদিক মাইনুল হাসান (সড়ক) প্রেস ক্লাবের সম্মুখে জেলা যুবদল সাধারণ সম্পাদক অ্যাভোকেট, এইচ এম তছলিম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক উলফৎ রানা রুবেল ও সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাভোকেট, হাফিজ আহমেদ বাবলুর নেতৃত্বে যুবদরের সদস্য জড়ো হয়। এসময় একদল পুলিশ তাদের কর্মসূচি বন্ধ রাখার আহবান জানায়।

এসময় একদল যুবদল সদস্য স্লোগান দিতে শুরু করে এক প্রর্যায়ে পুলিশ তাদের উপর লাঠিচার্জ শুরু করে এত নেতা কর্মীরা ছত্রভঙ্গ হয়ে পড়ে। কিন্তু সাধারণ সম্পাদক এইচ এম তছলিম ও সাংগঠনিক সম্পাদক হাফিজ আহমেদ বাবলু কর্মসূচি বাতিল করে নেতা কর্মীদের যার যার গন্তব্যে চলে যেতে বলার পর পুলিশ পুনরায় অশ্বিনী কুমার টাউন হল চত্বরে ফিরে আসে।

এরিআগে সকাল থেকে সদররোডসহ নগরীর বিভিন্ন জায়গায় বিপুল সংক্ষক পুলিশ সদস্যদের মারমুখী আবস্থায় মোতায়েন করা হয়।

এ সময় অশ্বিনী কুমার টাউন হল চত্বরে সাধারণ মানুষের চলাচলে বাধা প্রদান করায় ও প্রবেশের সময় কর্তব্যরত পুলিশ সদস্যদের বাধার মুখে গণমাধ্যম কর্মীরাও পড়েন।

এ ব্যাপারে কোতয়ালী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত  ইনচার্জ অফিসার (ওসি) নুরুল ইসলাম বলেন, নগরীর আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি ও নগরবাসীর চলাচল স্বভাবিক রাখার কারণেই আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে তাছাড়া এটা প্রশাসনের স্বাভাবিক কর্তব্যরত রুটিন কারো কর্মসূচি বাতিল করার জন্য নয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here