ব্যাটারি চালিত অটো খুইয়ে দিশে হারা আলমগীর পুলিশের সহায়তা চান

আরিফ হোসেন, বরিশাল: পাঁচজনের সংসার বাবুগঞ্জের পশ্চিম পাংশা গ্রামের ব্যাটারি চালিত অটো চালক আলমগীরের।দরিদ্র আলমগীর রহমতপুর বাজার টু পাংশা ভায়া রুটে অটো চালিয়ে নিজের ও সংসার খরচ চালিয়ে কোন রকম চলছিল। কিস্তিতে ক্রয় করা একামাত্র আয়ের সম্বল অটোটি খুইয়ে দিশে হারা হয়ে পরেছে তিনি।
শনিবার খোয়া যাওয়া অটো টি ফিরে পেতে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের এয়ারপোর্ট থানায় সহায়তা চেয়ে আর্জি করেছেন ভুক্তভোগী ।আলমগীরের ভাষ্য অনুযায়ী, প্রতিদিনের ন্যায় রহমতপর মাধ্যমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন একটি গ্রেজে অটো গাড়ি টি চার্জে বসিয়ে বাড়িতে যান। সকালে এসে গ্রেজে অটো না দেখে উদ্বিগ্ন হয়ে পরেন। খোঁজ নিয়ে জানতে পারেন অটো গ্রেজের মালিক রাসেল ২০ মার্চ ভোর রাতে অটো নিয়ে পালিয়ে গেছে। ওই দিন রাতেই তিনি এয়ারপোর্ট থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন।
জানাযায়, পলাতক অটো চোর রাসেল একজন দুষ্ট প্রকৃতির লোক।রাসেল জেলার বাকেরগঞ্জ থানাধীন পশ্চিম নলুয়া গ্রামের হাবিব ফকিরের ছেলে। রাসেল বছর খানেক আগে বাবুগঞ্জের রহমতপুরে এসে পশ্চিম রহমতপুর গ্রামের হাবিবের মেয়ে লাইজুকে বিয়ে কর ঘর জামাই থাকতো। সে সুবাদে শশুর হাবিব লোন করে একটি গ্রেজ বানিয়ে দেয় তাকে। ওই গ্রেজে অটো রাখতো ভুক্তভোগী আলমগীর। ঘটনার দিন ভোররাতে অটো নিয়ে পালিয়ে যায় রাসেল।রাসেলের স্ত্রী লাইজু বলেন, রাসেল দীর্ঘ দিন যাবৎ ঘরে ঘুমায় না। সে আমাকে টাকার জন্য নির্যাতন করে। এব্যাপারে এয়ারপোর্ট থানায় লাইজু নিজেই একটি লিখিত অভিযোগ করেন।দরিদ্র অটোচালক আলীমগীর বলেন, অভিযোগের একদিন হয়ে গেলেও পুলিশ আসেনি। অটো উদ্ধারে পুলিশের সহায়তা চেয়ে আকুতি করে তিনি সাংবাদিকদের বলেন অটো উদ্ধার না হলে সন্তানাদি ও পরিবার না খেয়ে মরতে বসবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here