খেলোয়াড়দের মানসিকতায় সন্তুষ্ট কুমান

স্পোর্টস ডেস্ক: চ্যাম্পিয়ন্স লিগ থেকে বিদায় নেওয়ার বেদনা আছে। আছে প্রচুর সুযোগ হাতছাড়া হওয়ার হতাশা। তারপরও পিএসজি ম্যাচ থেকে ইতিবাচক দিক খুঁজে নিচ্ছেন বার্সেলোনা কোচ রোনাল্ড কুমান। বিশেষ করে খেলোয়াড়দের মানসিকতায় সন্তুষ্ট এই ডাচ। প্যারিসে বুধবার শেষ ষোলোর ফিরতি লেগের ম্যাচটি ১-১ গোলে ড্র হয়। প্রথম লেগে ৪-১ গোলে হেরে যাওয়ায় দুই লেগ মিলিয়ে ৫-২ ব্যবধানে পিছিয়ে বিদায় নেয় কুমানের দল। এদিন ম্যাচের শুরু থেকে বেশ আত্মবিশ্বাসী ছিল বার্সেলোনা। দারুণ সব সুযোগও তৈরি করেছিলেন উসমান দেম্বেলে-লিওনেল মেসিরা। ম্যাচজুড়ে তৈরি করা সুযোগের অর্ধেকটাও কাজে লাগাতে পারলে লড়াইটা হতো জমজমাট। হয়নি তার কিছুই। উল্টো ধারার বিপরীতে কাতালান দলটি পিছিয়ে পড়ে প্রথম লেগে হ্যাটট্রিক করা কিলিয়ান এমবাপের স্পট কিকে। প্রথমার্ধেই দারুণ গোলে সমতা ফেরান মেসি। বিরতির আগে অধিনায়ক নষ্ট করেন স্পট কিক থেকে গোলের সুযোগ। সময় গড়ানোর সাথে সাথে মলিন হতে থাকে তাদের পারফরম্যান্সও। তবে খাদের কিনারায় দাঁড়িয়ে দলের প্রথমার্ধের পারফরম্যান্সে ভবিষ্যতে ভালো কিছুর সম্ভাবনা দেখছেন কুমান। “আমরা ছিটকে গেছি, তবে আমরা নিজেদের খেলায় খুশিৃপ্রতিপক্ষের জন্য কাজ কঠিন করে তোলার সুযোগ আমাদের ছিল। প্রথমার্ধে আমরা দারুণ খেলেছি। এ সময় আমরাই আধিপত্য করেছিলাম, আমাদের মানসিকতা ছিল দুর্দান্ত।” “আমাদের আরও কিছু প্রাপ্য ছিল। প্রথমার্ধে স্কোরলাইন কমপক্ষে ২-১ হওয়া উচিত ছিল। তাহলে হয়তো পার্থক্য গড়ে দেওয়া সম্ভব হত।” প্রচুর সুযোগ নষ্ট হওয়ায় দলে একজন পারফেক্ট নাম্বার নাইনের অভাব বোধ করেছেন কুমান? সত্যিটা তিনি অকপটেই স্বীকার করলেন। “এটা সত্যি। কঠিন একটা দলের বিপক্ষে এত বেশি সুযোগ তৈরি করাও স্বাভাবিক নয়ৃ আমরা ঝুঁকি নিয়েছিলাম। আমাদের ওয়ান-অন-ওয়ানে রক্ষণ সামলাতে হতো। বল পায়ে না থাকা অবস্থায় বুধবার আমরা অসাধারণ খেলেছি।” “আমাদের আরও নিখুঁত হতে হবে। এটাই দুই দলের পার্থক্য। কাম্প নউয়ে এর চেয়ে অনেক কম সুযোগে তারা অনেক গোল করেছিল।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here