নিজ মেয়েকে মাসের পর মাস যৌন হয়রানি!

নিজস্ব প্রতিনিধিঃএক বাবার বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে, ১০ বছর বয়সী নিজ মেয়েকে মাসের পর মাস যৌন হয়রানির। এ ঘটনায় মেয়ের মা তথা ওই ব্যক্তির স্ত্রী মামলা করেছেন। এতে ওই বাবাকে গ্রেফতারের পর কারাগারে পাঠানো হয়েছে। শনিবার লক্ষ্মীপুর আদালতের মাধ্যমে পুলিশ জেলা কারাগারে পাঠানো হয় তাকে।

লক্ষ্মীপুরের সদর উপজেলায় এ ঘটনা ঘটে। মেয়েকে যৌন হয়রানির অভিযোগ এনে গত শনিবার সকালে স্ত্রী নিজেই স্বামীর বিরুদ্ধে চন্দ্রগঞ্জ থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলাটি করেন। মামলার পরপরই পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে।

অভিযুক্ত ওই ব্যক্তি নোয়াখালীতে ভাঙারি ব্যবসা করতেন। এজন্য তিনি নোয়াখালীর অনন্তপুর টিভি সেন্টার সংলগ্ন একটি বাসায় স্ত্রী-মেয়েকে নিয়ে ভাড়া থাকতেন।

চন্দ্রগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একে ফজলুল হক বলেছেন, ‘মেয়েকে যৌন হয়রানির ঘটনায় অভিযুক্ত বাবাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পরে তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।’

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, নিজ মেয়েকে মাসের পর মাস স্ত্রীর অগোচরে হোসেন বিভিন্ন অজুহাতে যৌন হয়রানি করে আসছিল। প্রায় ৪ মাস আগে ঘটনাটি আঁচ করতে পেরে মেয়েকে নানার (মায়ের বাবার বাড়ি) বাড়ি পাঠিয়ে দেন মা।

গত ১৭ ফেব্রুয়ারি স্বামীকে নিয়ে তার স্ত্রী বাবার বাড়িতে বেড়াতে আসেন। তাদের সন্তান আগ থেকেই ওই বাড়িতে ছিল। মেয়েকে একা পেয়ে আবারও হোসেন গায়ে হাত দেন। চিৎকার শুনে মা দৌঁড়ে গিয়ে মেয়েকে রক্ষা করেন। মেয়েকে নিজ হেফাজতে রাখতে চাইলে স্বামী জোর করে নোয়াখালী ভাড়া বাসায় নিয়ে যেতে চায়। ঘটনাটি স্ত্রী তার আত্মীয়-স্বজনদের অবহিত করলে, সবাই থানায় অভিযোগের পরামর্শ দেয়।

মামলার বাদী বলেন, ‌‘আমার স্বামী মাসের পর মাস মেয়েকে যৌন হয়রানি করতেন। ঘটনাটি আঁচ করতে পেরে, মেয়েকে আমি আমার বাবার বাড়িতে পাঠিয়ে দিই। কিন্তু তাতেও রক্ষা হলো না। এজন্য বাধ্য হয়ে মামলা করেছি।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here