সরকার দেউলিয়ার কাছে এসে দাঁড়িয়েছে’

শামীম আহমেদ, বরিশাল:শেখ হাসিনার শাসন সামরিক বাহিনীর চেয়েও খারাপ বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদ। তিনি বলেন, মিয়ানমারে সামরিক সরকারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করতে পারে, কিন্তু শেখ হাসিনার সরকার মাঠেই নামতে দিচ্ছে না। এই সরকারের সময় শেষ হয়ে গেছে তারা দেউলিয়ার কাছে এসে দাঁড়িয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) বরিশাল জিলা স্কুলমাঠে বরিশাল মহানগর বিএনপি আয়োজিত এক বিক্ষোভ সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

মেজর হাফিজ উদ্দিন বলেন, এই সরকারকে সরিয়ে গণতান্ত্রিক সরকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে। স্লোগান দেয়ার জন্য এখানে আসবেন না। স্লোগান দেয়ার জন্য রাজপথ। স্লোগান দিয়ে আমাদের মিটিং নষ্ট করবেন না। আর যদি প্রতিরোধ করতে হয় তাহলে রাজপথে গিয়ে সন্ত্রাসী বাহিনীকে প্রতিরোধ করুন। আগুন জ্বালাতে হলে শেখ হাসিনার গদিতে আগুন জ্বালান। আমাদের মঞ্চে আগুন জ্বালাবেন না। মঞ্চে আগুন জ্বালানোর কোনো প্রয়োজন নাই।

মুক্তিযুদ্ধের প্রেক্ষপট তুলে ধরে তিনি বলেন, ভারতীয় বাহিনী না আসলেও আমরা এই দেশকে স্বাধীন করতে পারতাম। প্রতিবেশী রাষ্ট্র যখন দেখেছে বিজয় নিশ্চিত, মুক্তিবাহিনী বিজয়ের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে গেছে- তখন তারা কৃতিত্ব নেয়ার জন্য শেষ দিকে এসে যোগদান করেছে। তাদেরকে ছাড়াও আমরা এই দেশকে স্বাধীন করতে পারতাম।

তিনি আরো ২৫ই মার্চ কালো রাতে পাকিস্তানি বর্বর বাহিনীর হামলার পরের দিন যারা দুইদিন আগেও পল্টন থেকে শুরু করে বিভিন্নস্থানে বড় বড় গলাবাজি করেছেন তাদের আর দেখা যায়নি।

মেজর জিয়া ভারতে পালিয়ে থেকে মুক্তিযুদ্ধ করেনি তিনি সরাসরি এদেশের রনাঙ্গনে পাক বাহিনীর সাথে যুদ্ধ পরিচালনা করা সহ তিনি নিজেও যুদ্ধ করেছিলেন।

মেজর হাফিজ বলেন, যুদ্ধের সময় ছিলাম ৮০ হাজার মুক্তিযোদ্ধা। এখন আওয়ামী লীগের বদৌলতে হয়ে গেছে আড়াই লাখ মুক্তিযোদ্ধা। এইসব শরণার্থী মুক্তিযোদ্ধারা ৭১ সালে কোথায় ছিলেন জানি না।

বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ও বরিশাল মহানগর বিএনপির সভাপতি মো. মুজিবর রহমান সরোয়ারের সভাপতিত্বে সমাবেশে বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব, সাংগঠনিক সম্পাদক বিলকিস জাহান শিরিন, খুলনা মহানগর সিটি করপোরেশনের বিএনপির মেয়রপ্রার্থী নজরুল ইসলাম মঞ্জু, চট্রগ্রাম মহানগর সিটি করপোরেশনের বিএনপির মেয়রপ্রার্থী ডা. শাহাদাত হোসেন, রাজশাহী মহানগর সিটি করপোরেশনের বিএনপির মেয়রপ্রার্থী মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল, বিএনপি নেতা আবুল হোসেন খান, ওবায়দুল আকরাম, আলমগীর হোসেন প্রমুখ বক্তব্যে রাখেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here