সাংবাদিকদের হুমকি দেওয়ার ঘটনায় জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় জড়িত নয়

নিজস্ব প্রতিনিধিঃসংবাদ প্রকাশের পর একটি বেসরকারি টেলিভিশনের বার্তা সম্পাদক ও রিপোর্টারকে দেওয়া হুমকির সঙ্গে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় জড়িত নয় বলে দাবি করেছে কর্তৃপক্ষ। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের দুর্নীতি নিয়ে সংবাদ প্রকাশের পর তাদের ঠিকানায় কাফনের কাপড় পাঠিয়ে হুমকি ও চিঠি দেওয়া হয়।

এ ঘটনাটি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় নিয়ে একটি কুচক্রী মহলের গভীর ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে ঘটানো হয়েছে বলে বৃহস্পতিবার (৪ ফেব্রুয়ারি) এক সংবাদ বিজ্ঞাপ্তিতে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ দাবি করেছে।

 

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন ও গণমাধ্যমের সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের বৈরী সম্পর্কের হীন লক্ষ্যে একটি মহল বেশ কিছুদিন ধরে অসত্য, বানোয়াট ও মনগড়া অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছে। সর্বশেষ তারা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের নাম যুক্ত করে একটি ঘৃণ্যপত্র বৈশাখী টেলিভিশন চ্যানেলে পাঠিয়েছে। যার সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনো সম্পর্ক নেই।

বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ থেকে এ ব্যাপারে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সহায়তা কামনা করে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের গাছা থানায় ২টি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হয়েছে।

এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, এ ঘটনা যারা ঘটিয়েছে তারা একটি চক্র বলেই মনে হচ্ছে। চক্রটি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস অস্থিতিশীল করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় নিয়ে সংবাদ প্রকাশের পর বিশ্ববিদ্যালয়ের খামে বৈশাখী টেলিভিশনের প্রধান বার্তা সম্পাদক সাইফুল ইসলাম ও রিপোর্টার কাজী ফরিদকে বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম ব্যবহার করে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে একটি চিঠি দেওয়া হয়েছে। এরপর দুই সাংবাদিক জিডি করেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here