ফরিদপুরে মুক্তিযোদ্ধার মানবেতর জীবন-যাপন

ফরিদপুর প্রতিনিধি:দীর্ঘ ৫ বছর ধরে অসুস্থ হয়ে মানবেতর জীবন-যাপন করছেন ফরিদপুরের সালথা উপজেলার বড়খারদিয়া গ্রামের বাসিন্দা বীর মুক্তিযোদ্ধা সাহিদুজ্জামান সাহেব খান। তিনি উন্নত চিকিৎসার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার সাহায্য কামনা করেছেন।

 

সরে জমিনে গিয়ে জানা যায়, বীর মুক্তিযোদ্ধা সাহিদুজ্জামান সাহেব খান ২০১৬ সাল থেকে বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়ে ঘরে পড়ে আছেন। তার একটি কন্যা ও একটি পুত্র সন্তান রয়েছে। সন্তান দুজন লেখা-পড়া করে। তাদের লেখা-পড়ার জন্য প্রতি মাসে ৭-৮ হাজার টাকা খরচ হয়। প্রতি মাসে ৪-৫ হাজার টাকার ঔষধ লাগে। মুক্তিযোদ্ধা ভাতা পান প্রতি মাসে ১২ হাজার টাকা। সন্তানদের লেখা-পড়া খরচ ও ঔষধ খরচ বাবদ প্রতি মাসে যে টাকা ব্যয় হয় তাতে সংসার চলে কোনো মতে। সংসারে উপার্জন করার মতো অন্য কোনো অবলম্বন না থাকায় উন্নত চিকিৎসা হচ্ছে না বলে দাবি মুক্তিযোদ্ধা সাহেব খানের পরিবারের।

বীর মুক্তিযোদ্ধা সাহেব খানের স্ত্রী বলেন, ৫ বছর ধরে আমার স্বামী অসুস্থ হয়ে ঘরে পড়া। জমি-জমা যা ছিলো সব শেষ করে স্বামীর চিকিৎসা করিয়েছি। তার শারীরিক অনেক সমস্যা দেখা দিয়েছে। শ্রবণ শক্তি কমে গেছে। কানের পর্দা নাই। ইন্ডিয়া থেকে কানের জন্য অপারেশন করানো প্রয়োজন। তাতে অনেক টাকা লাগবে। প্রতিমাসে মুক্তিযোদ্ধা ভাতা যা পাই তাতে আমার দুটি সন্তানের লেখা-পড়া ও তার ঔষধ বাবদ খরচ হয়ে যায়। সংসার চালাতে অনেক কষ্ট হয়। আমার সন্তানদের লেখা-পড়া ও আমার স্বামীর উন্নত চিকিৎসার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে আর্থিক সাহায্য কামনা করছি। এছাড়াও মাননীয় সংসদ উপনেতা সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী এমপি ও সালথা উপজেলা চেয়ারম্যান মো. ওয়াদুদ মাতুব্বারের কাছে সহযোগিতা কামনা করছি।

বীর মুক্তিযোদ্ধা সাহেব খান তার উন্নত চিকিৎসার জন্য প্রধানমন্ত্রীর সাহায্য কামনা করছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here