‘মাদক ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে সরকার জিরো টলারেন্স’

বিশেষ প্রতিনিধি:যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল এম.পি বলেছেন, মাদক ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে সরকার জিরো টলারেন্স নীতি অবলম্বন করছেন। সন্ত্রাস-মাদক ব্যবসায়ীদের কোন দল নেই, তাদের কোন ধর্ম নেই। তারা সমাজের নিকৃষ্ট ব্যক্তি। সন্ত্রাস ও মাদক ব্যবসায়ীদের সামাজিকভাবে অবাঞ্চিত ঘোষণা করতে হবে। সামাজিকভাবে বয়কট করতে হবে।
বর্তমানে কিশোরগ্যাং ও নারীর প্রতি ডিজিটাল ভায়োলেন্স চরমভাবে মাথা চাড়া দিয়ে উঠেছে। এসবের সাথে জড়িতদের আইনের আওতায় এনে কঠিন শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
শুক্রবার সন্ধ্যার পর গাজীপুরের টঙ্গী মরকুন টিএন্ডটি কলোনি মাঠে আয়োজিত মাদক, সন্ত্রাস, কিশোর গ্যাং ও নারীর প্রতি ডিজিটাল ভায়োলেন্স বিরোধী সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।
গাজীপর সিটি করপোরেশন ৪৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সাদেক আলীর সভাপতিত্বে ও জিএমপি’র সিনিয়র সহকারি পুলিশ কমিশনার (টঙ্গী জোন) আশরাফ-উল-ইসলামের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার খন্দকার লুৎফুল কবির। এতে আরও বক্তব্য রাখেন গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনার, অপরাধ (দক্ষিণ) মোহাম্মদ ইলতুৎ মিশ, উপ-পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক) মামুনুর রশীদ, সাবেক এমপি বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী মোজাম্মেল হক, গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আসাদুর রহমান কিরণ, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মতিউর রহমান মতি, টঙ্গী পূর্ব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ আমিনুল ইসলাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা ফজলুল হক, রজব আলী, কাউন্সিলর আবুল হোসেন, মাজহারুল ইসলাম দীপু, সাবেক কাউন্সিলর হেলাল উদ্দিন প্রমুখ। শেষে মরকুন টিএন্ডটি বাজার ও নতুন বাজার এলাকায় সবধরণের অপরাধ প্রতিরোধে ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরা উদ্বোধন করা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here