কে এই ‘বিকৃতমনা’ ফারদিন দিহান?

নিউজ ডেস্কঃগ্রুপ স্টাডি করতে গিয়ে বন্ধুর ধর্ষণের পর হত্যার শিকার হন ‘ও’ লেভেলের শিক্ষার্থী আনুশকা নুর আমিনকে (১৭)। ইতোমধ্যে আদালতের কাছে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিও দিয়েছেন অভিযুক্ত ফারদিন ইফতেখার দিহান।

ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসক বলছেন, ‘ধর্ষণের কারণে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণেই মৃত্যু হয়েছে ওই শিক্ষার্থীর।’

আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তদন্তে জানা গেছে, দিহান ও ধর্ষণের শিকার কিশোরীর মধ্যে পরিচয় ছিল দুই বছরের। তাদের পরিবারের মধ্যেও জানাশোনা রয়েছে। শুক্রবার (৮ জানুয়ারি) তদন্তে নিযুক্ত আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর একাধিক দায়িত্বশীল সূত্রে জানা গেছে এসব তথ্য।

ডিএমপির রমনা বিভাগের নিউ মার্কেট জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার আবুল হাসান বলেন, ‘ফারদিন ইফতেখার দিহানের বাসা রাজধানীর লেক সার্কাস এলাকায়। তার বাবা আব্দুর রব সরকার। তিন ভাইয়ের মধ্যে দিহান সবার ছোট। দিহান ও কিশোরীর মধ্যে দীর্ঘদিন বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক ছিল। দিহান ওই কিশোরীর চেয়ে দুই বছরের বড়। গত বছর ম্যাপল লিফ ইন্টারন্যাশনাল স্কুল থেকে ‘ও’ লেভেল শেষ করে দিহান। এখন সে জিইডি’র প্রস্তুতি নিচ্ছিল।’

রমনা বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার সাজ্জাদ হোসেন (ডিসি) বলেন, ‘দিহান ও খুন হওয়া কিশোরীর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের আইডিতে তাদের কিছু ছবি পোস্ট করা আছে। ওই কিশোরীর ও নিজের পরিবারের মধ্যে ভালো সম্পর্ক আছে বলেও দাবি করেছে দিহান।’

পুলিশের এই কর্মকর্তা বলেন, ‘তাদের পোস্টগুলো দেখার পর, দিহানের সব কথা অবিশ্বাস করারও সুযোগ নেই।’

জানা গেছে, দিহানের বাসা রাজধানীর কলাবাগান লেক সার্কাস এলাকায়। গ্রামের বাড়ি রাজশাহী জেলার দুর্গাপুরের রাতুগ্রামে। তার বাবা অবসরপ্রাপ্ত সাব-রেজিস্ট্রার আব্দুর রব সরকার। তিনি তার বড় ছেলে সুপ্তকে নিয়ে গ্রামে থাকেন। আর মা সানজিদা সরকার শিল্পীর সঙ্গে দিহান ও তার মেজ ভাই নিলয় থাকেন ঢাকায়। নিলয় ব্যাংকে চাকরি করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here