কুমিল্লায় স্ত্রী হত্যা মামলা স্বামীর ফাঁসি

নিজস্ব প্রতিনিধিঃকুমিল্লায় তালাকপ্রাপ্ত স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় সাবেক স্বামী আব্দুল কাদেরের মৃত্যুদণ্ডের রায় দিয়েছেন আদালত।  বুধবার (৬ জানুয়ারি) দুপুরে কুমিল্লার চতুর্থ আদালতের অতিরিক্ত দায়রা জজ রোজিনা খাঁন এ রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি আবদুল কাদের জেলার দেবিদ্বার উপজেলার ফতেহাবাদ গ্রামের আবু তাহেরে ছেলে।  তিনি জামিনে বেরিয়ে পলাতক রয়েছেন।

আদালত সূত্র জানায়, ২০০১ সালে দেবিদ্বার উপজেলার রাজামেহার গ্রামের আবুল হোসেনের মেয়ে আয়েশা আক্তারের সঙ্গে একই উপজেলার ফতেহাবাদ গ্রামের আবদুল কাদেরের বিয়ে হয়।  উভয়ের মাঝে পারিবারিক কলহ দেখা দিলে ২০১০ সালে তাদের তালাক হয়ে যায়।

পরে ২০১৩ সালের ১২ আগস্ট বিকালে মামার বাড়ি থেকে ফেরার পথে মুরাদনগর উপজেলার উড়িশ্বর গ্রামে আয়েশা আক্তারের পথরোধ করে আবদুল কাদের।  এ সময় আয়েশা আক্তার কথা বলতে অস্বীকৃতি জানালে আবদুল কাদের ক্ষিপ্ত হয়ে ছুরিকাঘাত করে।  পরে হাসপাতালে নেয়ার পথে সে মারা যায়।  এ সময় স্থানীয় লোকজন আবদুল কাদেরকে আটক করে পুলিশে দেয়।

এ ঘটনায় নিহত আয়েশা আক্তারের বাবা আবুল হোসেন ৪ জনের বিরুদ্ধে ওইদিন রাতেই মামলা করেন।  পরদিন আসামি আবদুল কাদের কুমিল্লার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শফিকুল ইসলামের আদালতে হত্যাকাণ্ডের দায় স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দী দেন।

আদালতের অতিরিক্ত পিপি মোয়াজ্জেম হোসেন জানান, মামলায় ১৫ সাক্ষীর স্বাক্ষ্যগ্রহণ ও দীর্ঘ শুনানি শেষে বুধবার বিচারক তার মৃত্যুদণ্ডের রায় দিয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here