করোনায় এ পর্যন্ত ১২৩ চিকিৎসকের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিনিধিঃদেশে করোনা ভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়ে এ পর্যন্ত ১২৩ জন চিকিৎসকের মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্ত হয়েছেন দুই হাজার ৮৮৭ জন চিকিৎসক। এ ছাড়া নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীসহ চিকিৎসাসেবা সংশ্লিষ্ট মোট আট হাজার ১৫১ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। বুধবার বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমএ) মহাসচিব ডা. মো. ইহতেশামুল হক চৌধুরী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এ সংগঠনের হিসাব মতে, আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা ঢাকা বিভাগে সবচেয়ে বেশি।

এরপরে চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অবস্থান। আক্রান্ত দুই হাজার ৮৮৭ জন চিকিৎকের মধ্যে ঢাকা বিভাগে এক হাজার ২৬৯ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ৭৬৭ জন, সিলেট বিভাগে ৪১২ জন, ময়মনসিংহ বিভাগে ১৮৮ জন, খুলনা বিভাগে ১০৫ জন রয়েছেন। বাকিরা রংপুর, বরিশাল ও রাজশাহী বিভাগের। এ পর্যন্ত আক্রান্ত নার্সের সংখ্যা এক হাজার ৯৭৯। এ ছাড়া আরও তিন হাজার ২৪৫ জন স্বাস্থ্যকর্মী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ) সূত্রে জানা যায়, দেশে সর্বপ্রথম ১৪ এপ্রিল সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজের মেডিসিন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডাক্তার মঈন উদ্দিন আহমেদ করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন ঢাকার একটি হাসপাতালে। তিনি ঢাকা মেডিকেল কলেজের ৪৭ ব্যাচের শিক্ষার্থী ছিলেন। এবং সর্বশেষ ২৮ ডিসেম্বর (সোমবার) সিলেটের ইনস্টিটিউট অব হেলথ টেকনোলজির সাবেক প্রভাষক ও বিসিএস স্বাস্থ্য ৩৩ তম ব্যাচের কর্মকর্তা ডা. শেখ সায়েম করোনায় আক্রান্ত হয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা যান। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের রোগ নিয়ন্ত্রণ বিভাগের সাবেক পরিচালক ও আইইডিসিআরের সাবেক প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা অধ্যাপক ডা. বেনজির আহমেদ বলেন, চলতি বছর করোনায় ১২৩ জন চিকৎসকের মৃত্যু স্বাস্থ্যখাতের অপূরণীয় ক্ষতি হয়েছে।

এদের বেশির ভাগ প্রবীণ ও বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ছিলেন। তবে সরকার করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় চলতি বছরে আট হাজার চিকিৎসক নার্স নিয়োগ হয়েছে। আরো দুই হাজার চিকিৎসক নিয়োগ হবে। এটি স্বাস্থ্য খাতে সফলতা বলা যেতে পারে। একসঙ্গে এতগুলো নিয়োগ আগে কখনো হয়নি। এদিকে গত মঙ্গলবার বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়- গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ৩০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃত্যু হয়েছে সাত হাজার ৫০৯ জনের। আর নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন এক হাজার ১৮১ জন। সব মিলিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে পাঁচ লাখ ১১ হাজার ২৬১ জনে। ঢাকা সিটিসহ দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ও বাড়িতে উপসর্গ বিহীন রোগীসহ গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন এক হাজার ২৪৫ জন। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন চার লাখ ৪৫ হাজার ৫৬৩ জন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here