কুমিল্লায় ট্রেনের ধাক্কায় স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যু

কুমিল্লা  প্রতিনিধিঃকুমিল্লায় মালবাহী ট্রেনের ধাক্কায় স্বামীর মৃত্যুর পর মারা গেছেন তার স্ত্রীও। এ দুর্ঘটনায় আহত অপর দুইজনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকার একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদের মধ্যে নিহত দম্পতির মেয়ে আঁখি আক্তারকে আইসিইউতে রাখা হয়েছে। তাদের বাড়ি জেলার দেবিদ্বার উপজেলার গজারিয়া গ্রামে। নিহতরা হলেন- ফরিদ মুন্সি (৫০) ও স্ত্রী পেয়ারা বেগম (৪৫)।

আহতরা হলেন- নিহত দম্পতির মেয়ে কলেজছাত্রী আঁখি আক্তার (১৬) ও তাদের ভাগিনা সিএনজিচালক রাকিবুল (২৫)। দেবিদ্বার উপজেলার গুনাইঘর উত্তর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান খোরশেদ আলম জানান, নিহত দুজনের লাশ তাদের গ্রামের বাড়িতে আনা হয়েছে। এর আগে বুধবার সকাল পৌনে ৭টার দিকে কুমিল্লা নগরীর শাসনগাছা রেলওয়ে লেভেল ক্রসিং এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। জিআরপি পুলিশ জানায়, চট্টগ্রাম থেকে ঢাকাগামী একটি মালবাহী ট্রেন শাসনগাছা রেলওয়ে লেভেল ক্রসিং অতিক্রম করছিল। এ সময় একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশা রাস্তা অতিক্রম করতে গেলে এ দুর্ঘটনা ঘটে। স্থানীয় লোকজন সিএনজির চালকসহ চারজনকে উদ্ধার করে গুরুতর অবস্থায় কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। এদের মধ্যে ফরিদ মুন্সিকে হাসপাতালে নেয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। দুপুরে নিহত ফরিদ মুন্সির বড় ভাই আবু তাহের মুন্সি বলেন, ছোট ভাই ফরিদ মুন্সি অসুস্থ ছিল।

সকালে ডাক্তার দেখাতে স্ত্রী-কন্যাসহ কুমিল্লা শহরে এসে দুর্ঘটনার শিকার হয়ে আমার ভাই মারা যান। পরে তার স্ত্রী, কন্যা ও সিএনজিচালক ভাগিনাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকায় নেয়ার পথে ভাইয়ের স্ত্রী মারা যান। অপর দুজনকে ঢাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদের মধ্যে আঁখি আক্তারকে আইসিইউতে রাখা হয়েছে। কুমিল্লা রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই মো. ইসমাইল হোসেন সিরাজী বলেন, স্থানীয়দের সহায়তায় আহত চারজনকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ফরিদ মুন্সিকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে জানতে পেরেছি ঢাকায় নেয়ার পথে ফরিদ মুন্সির স্ত্রীও মারা গেছেন। এ দুর্ঘটনায় ট্রেন চলাচলে কোনো বিঘœ ঘটেনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here