বরিশাল নগরীতে এস আই’র বিরুদ্ধে মসজিদের জমি দখল চেস্টার অভিযোগ

নিজস্ব  প্রতিনিধিঃ বরিশাল নগরীর ২৯ নং ওয়ার্ড, নথুল্লাবাদের লুৎফর রহমান সড়কে মসজিদের জমি অবৈধ ভাবে দখল চেস্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে এক পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে।যদিও স্থানীয় কাউন্সিলর এবং মসজিদ কমিটির নেতাদের হস্তক্ষেপে আপাতত তার সেই চেস্টা ভেস্তে গেছে। তবু্ও বিষয়টির আইনগত প্রতিকারের লক্ষে মসজিদ কমিটির সভাপতি এবং সেক্রেটারি বাদী হয়ে বরিশাল সিনিয়র সহকারী জজ আদালতে গত ৮’ই নভেম্বর একটি দেওয়ানী মামলা রুজু করেন যার নেই নং ২৯০/২০২০। মামলা সুত্রে জানা যায়,বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশে অপারেটর হিসেবে কর্মরত এস আই মোঃ ইউসুফ আলী লুৎফর রহমান সড়কে শত বছরের বিরোধপূর্ণ জমি (জে এল নং -৩২,এস এ ৪০৪ নং দাগ) ক্রয় করে।কিন্তু তিনি তার ক্রয়কৃত জমির দখল না পেয়ে পুলিশী প্রভাব খাটাইয়া একই মৌজার ৪০৫ ও ৪০৬ নং দাগের জমিতে (যাহা বাইতুন নুর জামে মসজিদের সম্পত্তি এবং মহামান্য সুপ্রিমকোর্টে বিচারাধীন দেওয়ানী আপিল কেস নং ৮৫০/১৭ নং মোকদ্দমার বিরোধীয় সম্পত্তি) গায়ের জোরে দখল করার উদ্দেশ্যে সিটি করপোরেশনের প্লান ছাড়া বাউন্ডারি ওয়াল করা শুরু করে। বরিশাল সিটি করপোরেশনের রোড ইন্সপেক্টরের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করিয়া ৬/১১/২০২০ তারিখে কাজ চালিয়ে যায় এস আই মোঃ ইউসুফ আলী। পরের দিন অর্থাৎ ৭/১১/২০২০ তারিখে পুনরায় উক্ত বাউন্ডারি ওয়াল বেআইনীভাবে নির্মাণ শুরু করিলে ২৯ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মোঃ ফরিদ আহমেদ উপস্থিত হইয়া বেআইনী কাজে বাধা দেয়ার পরে এস আই মোঃ ইউসুফ আলী উক্ত বাউন্ডারি ওয়াল এর কাজ সাময়িক সময়ের জন্য বন্ধ রাখেন। এস আই মোঃ ইউসুফ আলী পুলিশে চাকুরী করিয়া এবং পুলিশি প্রভাব খাটাইয়া স্থানীয় লোকজনকে ভয়ভীতি ও গালিগালাজ করে ক্ষমতার অপব্যাবহার এককথায় এলাকার নিরীহ ও গরীব লোকজনকে ভয়ভীতি দেখাইয়া জিম্মি করিয়া মসজিদের জায়গা হইতে ও মালিকানা সম্পত্তি বেদখল করিতে চেস্টা চালিয়ে আসছে বলে মামলায় উল্লেখ করা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here