বাউফলে এ সড়ক কার? পৌরসভার না কোন ব্যাক্তি মালিকানার?

এম মনিরুজ্জামান হিরোন, বাউফল প্রতিনিধি: বাউফলে এ সড়ক কার? পৌরসভার না ব্যাক্তি মালিকানার? এমনই অভিযোগে সরজমিনে দেখা যায়, পটুয়াখালীর বাউফল পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ডে একটি আরসিসি সড়কের মধ্যে পাকা বেঞ্চ ও টিনের বেড়া দিয়ে চলাচলে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করেছেন স্থানীয় বাসিন্দা মো. বারেক হাওলাদারের ছেলে মো. আল-মামুন। সড়কটির মালিকানা দাবী করছেন দুই পক্ষ। আল-মামুন’দের দাবী- সড়কটি পৌরসভার নয়, সড়কের জায়গা তাদের। অপরদিকে, ওই বেঞ্চ ও টিনের বেড়া অবৈধ দাবী করে অপসারনের জন্য মৌখিক নির্দেশ দিয়েছেন পৌর কর্তৃপক্ষ। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে ঘটনাস্থল পরির্দশন করেছেন বাউফল থানা পুলিশ। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, আল মামুন তাঁর বাসার সামনে সরকারি সড়ক দখল করে বসার বেঞ্চ ও টিনের প্রাচীর নির্মাণ করেন। এতে করে সাধারন মানুষের চলাচলে ভোগান্তির তৈরি হয়। ওই সড়কের দক্ষিণ পার্শ্বে মো. জাহিদ হোসেন নামের সাবেক সেনা সদস্য তাঁর ক্রয়কৃত জমির সিমানা প্রাচীর ওয়াল নির্মাণ করে। এতে আল- মামুনের স্ত্রী মোসা. আলফা বেগম বাধা প্রদান করেন। সাবেক সেনা সদস্য জাহিদ হোসেন জানান, মামুন সরকারি রাস্তায় বেঞ্চ তৈরি করে আমার জায়গা দিয়ে চলাচল করত। এখন আমি আমার জমির সীমানা প্রাচীর ওয়াল নির্মাণ করলে তাদের চলাচলের পথ বন্ধ হয়ে যায়। তাই তাঁরা আমার ওয়াল নির্মাণ কাজে বাধা প্রদান করে। আমাকে অহেতুক ভাবে হয়রানি করছে। এবিষয়ে আল-মামুনের ভাই মো. শামিম বলেন, রাস্তার জায়গা আমাদের। তাই আমরা বেঞ্চ নির্মাণ করছি। এবিষয়ে বাউফল পৌরসভার উপ-সহকারি প্রকৌশলী মো. জহিরুল ইসলাম বলেন, আমরা প্রাথমিক অবস্থায় দেখে আসছি। আল মামুনকে চিঠি দিয়ে রাস্তা থেকে বেঞ্চ অপসারণ করে পরিস্কার করে দেব। এবিষয়ে বাউফল থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, থানায় জানানোর পরে আমি ঘটনাস্থানে গিয়েছি।বিষয়টি পৌরসভার হওয়ায় সমাধান তাঁরা দিবেন। জমি-জমা সংক্রান্ত বিরোধ নিস্পত্তির জন্য আদালতে যাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here