মনপুরায় ছাগলে ধান খাওয়া নিয়ে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ৫

মনপুরা  প্রতিনিধিঃভোলার মনপুরায় ক্ষেতের ধান ছাগলে খাওয়াকে কেন্দ্র করে ছাগল মালিক ও ধান ক্ষেতের চাষীর মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে দুই গ্রুপের পাঁচজন আহত হয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়েছেন।

শনিবার সকাল ১০ টায় উপজেলার হাজিরহাট ইউনিয়নের ফকিরহাট বাজারের পশ্চিম পাশে ধান ক্ষেতে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

গুরুতর আহত হাসপাতালে ভর্তি ৫ জন হলেন, ছাগলের মালিক মফিজা খাতুন (৬৫), ছেলে মুসলিম ও পুত্রবধূ হাসিনা, অপরদিকে ক্ষেতের চাষী নয়ন মহাজন (৩৫), ভাই কামাল মহাজন (৪০)। এদের সবাই উপজেলার হাজিরহাট ইউনিয়নের ফকিরহাট এলাকার বাসিন্দা।

জানা গেছে, শনিবার সকালে ছাগলের মালিক মফিজা খাতুন ছাগল নিয়ে নয়ন মহাজনের ধান ক্ষেতের পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় দুইজনের মধ্যে তর্ক-বিতর্ক শুরু হয়। পরে নয়ন মহাজন ছাগলের মালিক বৃদ্ধ মফিজা খাতুনকে ধাক্কা মেরে ফেলে দেয়। খবর পেয়ে ওই ছাগল মালিকের ছেলে ও পুত্রবধূ এসে নয়ন মহাজনের উপর হামলা করে। পরে নয়ন মহজনের ভ্ইা কামাল মহজান এসে ছাগল মালিকের উপর হামলা করে। এতে সংঘর্ষ বেঁধে যায়। উভয় গ্রুপের ৫ জন আহত হয়ে বর্তমানে হাসপাতালে ভর্তি হয়।

এই ব্যাপারে মনপুরা হাসপাতালের কর্তব্যরত আবাসিক মেডিকেল কর্মকর্তা ডাঃ মশিউর রজহমান জানান, দুই গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ৫ জন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। তারা চিকিৎসাধীন রয়েছে।

এই ব্যাপারে মনপুরা থানার কর্মকর্তা ইনচার্জ (ওসি) সাখাওয়াত হোসেন জানান, ঘটনাটি শুনেছি। কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ করলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here