পেইপাল অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করেই বিটকয়েন কেনাবেচা করতে পারবেন গ্রাহক

নিউজ ডেস্কঃএবারে পেইপাল অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করেই বিটকয়েন এবং অন্যান্য ভার্চুয়াল মুদ্রা কেনাবেচা করতে পারবেন প্রতিষ্ঠানের গ্রাহক। পেইপাল থেকে লেনদেন গ্রহণকারী দুই কোটি ৬০ লাখ বিক্রেতার কাছ থেকে ভার্চুয়াল কয়েনের মাধ্যমে কেনাকাটা করতে পারবেন গ্রাহক। বিবিসি’র প্রতিবেদন বলছে, সামনের কয়েক সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রে এই সেবা চালু করার পরিকল্পনা করছে পেইপাল। ২০২১ সালের শুরুতে পুরোদমে চালু হবে এই সেবা। খবর প্রকাশের পর বিটকয়েনের মূল্য ছাড়িয়েছে ১২ হাজার মার্কিন ডলার। বিটকয়েনের পর অন্যান্য যে ক্রিপ্টোকারেন্সি প্রথম পেইপাল সেবায় যুক্ত হবে সেগুলো হলো, ইথেরিয়াম, লাইটকয়েন এবং বিটকয়েন ক্যাশ। প্রতিষ্ঠানটি বলছে, সবগুলোই “সরাসরি পেইপাল ডিজিটাল ওয়েলেটে মজুদ করা যাবে।” পেইপাল আরও জানিয়েছে, “এই সেবার অংশ হিসেবে গ্রাহককে ক্রিপ্টোকারেন্সি ইকোসিস্টেম বুঝতে সহায়তা করতে পেইপাল অ্যাকাউন্টধারীকে শিক্ষামূলক উপাদান দেবে।” স্কয়ারের ক্যাশ অ্যাপ এবং রিভল্টের মতো অন্যান্য অনলাইন লেনদেন সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান ইতোমধ্যেই ক্রিপ্টোকারেন্সি কেনাবেচার সেবা চালু করেছে। তবে, এই খাতে বিশ্বের সবচেয়ে বড় বাণিজ্যিক নেটওয়ার্ক পেইপাল। ভার্চুয়াল কয়েন ব্যবহারের ক্ষেত্রে ক্রিপ্টোকারেন্সিকে জাতীয় মুদ্রায় রূপান্তর করে নেবে পেইপাল। ফলে যে প্রতিষ্ঠান পরিশোধিত অর্থ পাবে তারা ভার্চুয়াল কয়েনের বদলে সঠিক পরিমাণ পাউন্ড বা ডলার পাবে বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করেছে

বিবিসি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here