বরগুনায় তরুণ সমাজ সেবক সবুজ খান

বরগুনা প্রতিনিধিঃ বরগুনা সদর উপজেলায় একজন তরুন সমাজ সেবায় আত্মনিয়োগ করে সাধারণ মানুষের ভালোবাসায় সিক্ত হয়ে উঠেছেন । এলাকার সর্বত্রই এখন আলোচনা এই তরুণ সমাজ সেবক কে নিয়ে। নিজের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের কিছু অর্থ দিয়ে সাধারণ মানুষের দুঃখ দূর্দশা নিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন ।
বরগুনা সদর উপজেলার ৩নং ফুলঝুরি ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের সাহেবের হাওলা গ্রামের মৃতঃ শাহ আলম খানের ছেলে মোঃ সবুজ খান।
ঢাকায় ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের মালিক হয়ে ব্যবসা পরিচালনা করে আসছেন এই তরুণ সমাজসেবক। ছোটবেলা থেকেই ছিল পরোপকারী। সবসময় ভাবতেন প্রতিবেশী অসহায় মানুষদের নিয়ে। ব্যবসায় জড়িয়ে পড়ার পর তিনি সংকল্প করেন, সাধারণ মানুষের সেবা করার। তাই ব্যবসায়ের প্রতিদিনের লাভের টাকার কিছু অংশ জমা রাখেন সাধারণ মানুষের সেবায় বিলিয়ে দেবার জন্য।
তরুন এই সমাজ সেবক নিজ এলাকায় হতদরিদ্র ও খেটে-খাওয়া মানুষের বিপদে আপদে সবসময় পাশে থাকেন। খেটে-খাওয়া মানুষের ভাগ্য উন্নয়নের ক্ষেত্রে নিজের সাধ্যানুযায়ী পাশে থাকার চেষ্টা করেন। গ্রামের দরিদ্র পরিবারের যেসকল ছেলেমেয়ে মেধাবী কিন্তু আর্থিক সচ্ছলতার অভাবে লেখাপড়া চালিয়ে যেতে পারে না, সেই সকল ছেলেমেয়েদের লেখাপড়া চালিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য সাধ্য মতে তাদেরকে আর্থিক সাহায্য-সহযোগিতা করে থাকেন। নিজ ইউনিয়নের অনেক মসজিদ এবং এতিমখানা আছে, যেগুলোতে হুজুরদের বেতন এবং এতিম বাচ্চাদের খরচ চালানোর জন্য প্রতি মাসে একটা অর্থ হিসেব করে প্রতিমাসে দিয়ে থাকে এবং সবসময় সার্বিক উন্নয়নের ক্ষেত্রে পাশে থাকেন।
বৃষ্টিতে ভিজে ভিজে যেন মানুষজনের দূরে বাজার করতে যেতে না হয় সেজন্য এই ওয়ার্ডেই একটি সাপ্তাহিক বাজার প্রতিষ্ঠা করছে। যার নাম “নিজাম উদ্দিন খান সুপার মার্কেট । এতে করে যেমন গ্রামের লোকের ভোগান্তি কমেছে অন্যদিকে তেমনি হতদরিদ্র পরিবারের কর্মসংস্থান সহ বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড পরিচালনা করে আসছেন এই তরুন সমাজসেবক।
এ বিষয়ে তরুণ সমাজসেবক মোঃ সবুজ খান বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয় শেখ হাসিনার অঙ্গীকার বাস্তবায়নের লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছি।
মানুষ আল্লাহর সৃষ্টির সেরা জীব। আমাদের নবী হযরত মুহাম্মদ (সঃ) আমরা তাকে মানি অথচ তার পথকে অনুসরণ করি না। আমি তার অনুসারী হয়ে কেন মানুষের সেবায় এগিয়ে আসবো না। আমার প্রতিবেশী ও এলাকার মানুষ তার দাবিদার। আমি আমার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের কিছু লাভের অংশ গরীব দুঃখী মানুষের সেবায় ও এলাকার উন্নয়নে ব্যয় করে আসছি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here