বরগুনায় বখাটের অশ্লীলতার কারণে স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা

বরগুনা প্রতিনিধিঃ বরগুনা সদর উপজেলায় ৬নং বুড়িরচর ইউনিয়নের পূর্ব বুড়িরচর গ্রামের মনির, জহির ও চুন্নুর নেতৃত্বে রাকিব নামের এক বকাটের শ্লীলতাহানির কারণে অষ্টম শ্রেণিতে পড়ুয়া ছাত্রী আত্মহত্যা করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

বৃহস্পতিবার (৮ অক্টোবর) সকাল ১০টার দিকে শিক্ষার্থীর চাচার বাড়ির সামনে বসে একা পেয়ে বখাটে রাকিব শ্লীলতাহানি করেন শিক্ষার্থীকে। পরে মায়ের কাছে বলায় শিক্ষার্থীর মা গিয়ে বকাটে রাকিবকে জুতা দিয়ে মারধর করে। বিষয়টি এলাকার লোকজন জানাজানি হওয়ায় শিক্ষার্থী লজ্জায় সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে বাসায় কেউ না থাকায় দরজা বন্ধ করে রশি দিয়ে আত্মহত্যা করে।

শিক্ষার্থীর মা বলেন, আমার মেয়ে স্কুলে যাওয়ার পথে বিভিন্ন সময়ে উত্ত্যক্ত করতো বকাটে মনির। এ বিষয়ে বরগুনার সদর থানায় গত ৬ মাস আগে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মনির হলাদারকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করি। সেই মামলায় মনিরের নামে চার্জশিটও দেওয়া হয়। মামলাটি বর্তমানে বিচারাধীন রয়েছে। আর মনির এখনো পর্যন্ত পলাতক আছে। মামলার পর থেকে মনিরের ভাই জহির ও ভাগ্নি জামাই চুন্নু আমাদেরকে বিভিন্ন সময়ে মামলা তুলে নেওয়ার জন্য হুমকি ধামকি দিয়ে আসছে। গতকাল মনিরের ভাই জহির ও ভাগ্নি জামাই চুন্নু রাকিব নামের একটি ছেলেকে দিয়ে আমার মেয়েকে শ্লীলতাহানি করায় এই লজ্জার কারণে আমার মেয়ে আত্মহত্যা করেন। আমি এর সুষ্ঠু বিচার চাই। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে শিক্ষার্থীর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্ত করার জন্য বরগুনা মর্গে নিয়ে আসে।

এ ব্যাপারে বরগুনা সদর থানার তদন্ত (ওসি) শহিদুল ইসলাম বলেন, আমরা ঘটনাস্থলে এসেছি অভিযুক্ত কারীকে আটক করার চেষ্টা চলছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here