মেহেন্দিগঞ্জে চাদার দাবীতে বিবাহ ঠেকাতে গিয়ে বিপাকে সাংবাদিক, এলাকাবাসীর বিক্ষোভ

বিশেষ প্রতিনিধিঃ বৃহস্পতিবার বাদ আছর মেহেন্দিগঞ্জ হাসপাতালের জামে মসজিদে একটি বিবাহের আকদ অনুষ্ঠান চলছিল। হঠাৎ সেখানে উপস্থিত হয়  সাংবাদিক সঞ্জয় গুহ। ওই সাংবাদিক বাল্য বিবাহের অপবাদ দিয়ে চাদা দাবী করেন, চাদা দিতে অস্বীকার করায় বিবাহ অনুষ্ঠান বন্ধ করতে বলেন। তখন মেয়ের পক্ষ প্রাপ্ত বয়সের জম্ম নিবন্ধনের কাগজ দেখালে উপরি সুবিধা না পেয়ে প্রশাসনকে অবগত করেন। এর পরে ঘটনা স্থলে উপস্থিত হন মেহেন্দিগঞ্জ থানার এস আই মিজানুর রহমান। তিনি কাগজপত্র পরীক্ষা করে মেয়ের বয়স ১৮ বছর ৮ মাস পুর্ণতা পাওয়ায় বিবাহের অনুমতি দেয়। পরক্ষণে জানা যায় একটি পক্ষের হয়ে স্থানীয় কথিত ওই সাংবাদিক নামধারী ব্যক্তি প্রশাসনকে ভুল বুঝিয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত করান। এতে ক্ষুব্দ হয়ে এলাকাবাসী কথিত সাংবাদিকের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করেন। বিক্ষোভের স্লোগান ছিলো সঞ্জয়ের দুই গালে জুতা মারো তালে তালে, ভূয়া সাংবাদিক চাদার দাবীতে হয়রানী এবং সম্মান নষ্টা করায় বিচার দাবী করেন। উল্লেখ্য এর আগেও এই বিতর্কিত এবং অপ-সাংবাদিকদের নামে ৩টি চাঁদাবাজি মামলা হয়েছিল। এছাড়াও সম্প্রতি মেহেন্দিগঞ্জে একটি কাজের মেয়েকে জোরপূর্বক ধর্ষন এবং গর্ভপাতের ঘটনায় সঞ্জয় গুহ সাড়ে ৩লাখ টাকা উৎকোচ নিয়ে মামলা করা থেকে ধর্ষিতার পরিবারকে ভয়ভীতি দেখিয়ে মিমাংসা করা নিয়ে এলাকায় তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েন। এক পর্যায় ওই ঘটনা ভিন্নখাতে নিতে নাটক সাজিয়ে পুলিশকে মিথ্যা অপবাদ নিয়ে একটি সংবাদ করেন। ওই ঘটনায় এখনও মামলা চলমান রয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here