ফের একসঙ্গে সজল-নাবিলা

বিনোদন: আবারও জুটি বাঁধলেন ছোটপর্দার জনপ্রিয় তারকা আব্দুন নূর সজল ও অভিনেত্রী নাবিলা ইসলাম। তারা ‘সে’ নামের একটি নাটকে কাজ করেছেন সম্প্রতি। অমিতাভ আহমেদ রানা ও সুব্রত মিত্রের যৌথ পরিচালনায় এটি নির্মিত হয়েছে। আনোয়ার হোসেন বুলুর চিত্রগ্রহণে এ নাটকে আরও অভিনয় করেছেন গোলাম কিবরিয়া তানভীর, রেশমী প্রমুখ। পরিচালকদ্বয় জানান, সম্প্রতি মিরপুর ডিওএইচএসের বিভিন্ন লোকেশনে নাটকটির দৃশ্যধারণ হয়েছে। অন্তরীপ প্রডাকশন প্রযোজিত নাটকটির নির্বাহী প্রযোজক জহির করিম। এর গল্পে দেখা যাবে- কিছুদিন হলো রক্তিম আর চৈতীর বিয়ে হয়েছে। দাম্পত্য জীবনে ওরা বেশ সুখী। কিন্তু গত তিন /চার দিন ধরে রক্তিম লক্ষ্য করে কেউ একজন ওদের দুজনকে অথবা ওদের বাড়িটাকে নজরে রেখেছে। ব্যাপারটা নিয়ে রক্তিম আলোচনা করে চৈতীর সঙ্গে। তারা চিন্তিত, যে লোকটা নজরে রেখেছে তাকে দেখতে ধান্দাবাজ টাইপের। একদিন দুপুরে চৈতী বাসায় একা। হঠাৎ কলিং বেল বেজে ওঠে। চৈতী ক্লান্ত পায়ে এসে দরজা খুলতেই হুড়মুড় করে সেই লোকটি ঘরে প্রবেশ করে। সে চৈতীকে নানাভাবে ভয় দেখাতে থাকে। একপর্যায়ে শারীরিকভাবে আক্রমণ করলে চৈতী চিৎকার শুরু করে। সে চৈতীর মুখ চেপে ধরে এবং চড়থাপ্পড় মারতে থাকে। তার কথা শুনে মনে হয় সে চৈতীর প্রাক্তন প্রেমিক। চৈতী তাকে ঠকিয়ে রক্তিমকে বিয়ে করেছে। অন্য দিকে রক্তিম অফিস থেকে কোন ভাবেই চৈতীর সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারছে না। ল্যান্ডফোন, মোবাইল সবাই বন্ধ পায়। অস্থির হয়ে সে অফিস থেকে বেরিয়ে আসে। দ্রুত বাসায় এসে সে অনবরত কলিং বেল চাপে, ধরজা ধাক্কায়, কিন্তু কেউ দরজা খোলেনা। একসময় সে অন্যান্যের সহায়তায় দরজা ভেঙে ফেলে। ভেতরে প্রবেশ করে রক্তিম চমকে উঠে। এ রকম টানটান উত্তেজনা নিয়ে গল্পটি সমাপ্তির দিকে এগিয়ে যায়। শিগগিরই ‘সে’ প্রচার হতে যাচ্ছে বেসরকারি একটি টিভি চ্যানেলে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here