রাস্তার পাশে গলাকাটা মরদেহ

নিজস্ব প্রতিনিধিঃরাজধানীর মোহাম্মদপুরের একতা হাউজিং এলাকায় শিরু মিয়া (৪৫) নামের একজনকে কুপিয়ে ও গলাকেটে হত্যার ঘটনা ঘটেছে। তার বাসা আদাবরের শেখেরটেক এলাকার ৮ নম্বরে। নিহত শিরু নির্মাণ সামগ্রী সাপ্লায়ারের কাজ করতেন।

শনিবার (৩ অক্টোবর) রাত ৮ টার দিকে একতা হাউজিং এলাকার ৮ নম্বর রোডে এই ঘটনা ঘটে।

নিহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, নিহত শিরু পেশায় একজন নির্মান সামগ্রী সাপ্লায়ার। তিনি বিভিন্ন নির্মাণাধীন ভবনে ইট, বালু, রড সরবরাহ করতেন।

নিহতের ছেলে মো. মামুন বলেন, গাজীপুর থেকে সন্ধ্যায় বাবা বাসায় এসেছিল। এরপর ঢাকা উদ্যান থেকে ফোন পেয়ে তিনি সেখানে চলে যান। তিনি বাসায় ফেরার সময় তার সঙ্গে শেষ বার কথা হয়। এরকিছু সময় পরে একজন ফোন দিয়ে বলে বাবাকে কারা কুপিয়েছে। ঘটনাস্থলে এসে দেখি বাবার মরদেহ গলাকাটা অবস্থায় রাস্তার পাশে পড়ে আছে। তার সঙ্গে কারো শত্রুতা আছে বলে আমার জানা নেই।

এ বিষয়ে মোহাম্মদপুর থানার ইন্সপেক্টর (অপারেশন) দুলাল হোসেন বলেন, একতা হাউজিং এলাকায় শিরু মিয়া নামের একজনকে কুপিয়ে ও গলাকেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। তবে হত্যার কারণ এখনই বলা যাচ্ছে না। পুলিশ কাজ করছে। লাশ এখনো ঘটনাস্থলেই রয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here