দুর্দশাগ্রস্ত অবস্থায় যে দোয়া পড়লে কবুল হয়

ধর্ম ডেস্ক:মানুষকে আল্লাহ ইবাদতের জন্য সৃষ্টি করেছেন। কিন্তু শয়তানের প্ররোচনায় মানুষ অনেক সময় আল্লাহর ইবাদত হতে বিরত থাকে। কিন্তু যখন কারও উপর বিপদ আসে তখন সে বেশি বেশি আল্লাহকে ডাকে এবং ইবাদতে মশগুল থাকে। বান্দা যখন তার চরম বিপদে আল্লাহর কাছে সাহায্য চান এবং বিপদ থেকে উদ্ধার হওয়ার দোয়া করেন আল্লাহ তা কবুল করে থাকেন।

বিপদে পড়ে যারা আল্লাহর কাছে দোয়া করেন তাদের দোয়া কবুলের বিষয়ে কুরআনুল কারিমে আল্লাহ তাআলা সুস্পষ্ট ভাষায় তুলে ধরেছেন। আল্লাহ তাআলা কুরআনে সুরা আম্বিয়ার ৮৭ নম্বর আয়াতে বলেন-

لَّا إِلَهَ إِلَّا أَنتَ سُبْحَانَكَ إِنِّي كُنتُ مِنَ الظَّالِمِينَ
উচ্চারণ : ‘লা ইলাহা ইল্লা আংতা সুবহানাকা ইন্নি কুংতু মিনাজ জ্বালিমিন।’
অর্থ : তুমি ব্যতিত কোনো উপাস্য নেই; তুমি নির্দোষ আমি গোনাহগার।’ (সুরা আম্বিয়া : আয়াত ৮৭)

এ দোয়া কবুল সম্পর্কে কুরআন-সুন্নাহর বর্ণনা-
হযরত ইউনুস (আ.) যখন মাছের পেটে ছিলেন তখন তিনি আল্লাহর সাহায্য কামনা করে দোয়া করেছিলেন। আর আল্লাহ সেই দোয়া কবুল করেছিলেন।

কুরআনুল কারিমে সুরা আম্বিয়ার শেষ আয়াতে আল্লাহ তাআলা হজরত ইউনুস আলাইহিস সালামের সেই দোয়া কবুল করা সম্পর্কেও সুস্পষ্ট ঘোষণা দিয়েছেন। আল্লাহ তাআলা বলেন-

فَاسْتَجَبْنَا لَهُ وَنَجَّيْنَاهُ مِنَ الْغَمِّ وَكَذَلِكَ نُنجِي الْمُؤْمِنِينَ
‘অতপর আমি তাঁর (হজরত ইউনুস আলাইহিস সালামের) আহবানে সাড়া দিলাম এবং তাঁকে দুশ্চিন্তা থেকে মুক্তি দিলাম। আমি এমনিভাবে বিশ্ববাসীদের মুক্তি দিয়ে থাকি।’ (সুরা আম্বিয়া : আয়াত ৮৮)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here