কঠিন সময় দীপিকার, এনসিবি কার্যালয়ে কড়া নিরাপত্তা

বিনোদন ডেস্ক:মাদককাণ্ডে নাম জড়ানোর পর ভারতের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ ব্যুরো (এনসিবি) অফিদফতরে আজ হাজির হওয়ার কথা রয়েছে বলিউড অভিনেত্রী দীপিকা পাডুকোনের।

শুক্রবার (২৫ সেপ্টেম্বর) সকালেই মুম্বাইয়ের এনসিবি কার্যালয়ে দীপিকাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হতে পারে।

ইতোমধ্যে বলিউডের এই অভিনেত্রীর হাজিরা ঘিরে যেকোনও ধরনের অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে এনসিবি অফিসের চারপাশ নিরাপত্তার মোড়কে ঘিরে ফেলার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। মুম্বাই পুলিশের পক্ষ থেকে নেয়া হয়েছে অতিরিক্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

আনলক শুরুর পর সম্প্রতি গোয়ায় শুটিং করতে যান দীপিকা। এরইমধ্যে ম্যানেজার কারিশমা প্রকাশের সঙ্গে তার মাদক চ্যাট প্রকাশ্যে আসলে গেল বুধবার নায়িকাকে সমন পাঠানো হয়। এনসিবির তলবের পরই গোয়ার হোটেলে বসে আইনজীবীদের সঙ্গে এ নিয়ে দীর্ঘক্ষণ কথা বলেন দীপিকা। ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সেই আলোচনায় যুক্ত হন দীপিকার স্বামী অভিনেতা রণবীর সিংও।

দীপিকার এই কঠিন সময়টিতে তিনি যে মানসিকভাবে ভেঙে না পড়েন সেজন্য তার পরিবার ও কাছের মানুষরা পাশে দাঁড়িয়ে দারুণভাবে তাকে সাপোর্ট দিচ্ছেন।

বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর ঘটনায় তার বান্ধবী ও প্রেমিকা রিয়া চক্রবর্তী গ্রেফতারের পরই মাদককাণ্ডে একে একে সারা আলি খান, শ্রদ্ধা কাপুর, দীপিকা পাডুকোন ও রাকুল প্রীত সিংদের নাম আসতে থাকে। এই ৪ নায়িকাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করেছে এনসিবি। আগামীকাল ২৬ সেপ্টেম্বর সারা আলি খান ও শ্রদ্ধা কাপুরকে হাজির হতে হবে। তবে রাকুল প্রীত সিং কবে হাজির হবেন, তা জানা যায়নি।

সুশান্তের মৃত্যুর ৮৬ দিনের মাথায় টানা তিন দিন জিজ্ঞাসাবাদের পর গেল ৮ সেপ্টেম্বর মাদককাণ্ডে বাঙালি অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তীকে গ্রেফতার করে এনসিবি। তার জামিন আবেদন বাতিল করে ১৪ দিনের জন্য পাঠানো হয় মুম্বাইয়ের বাইকুল্লা জেলে। গত মঙ্গলবার (২২ সেপ্টেম্বর) মুম্বাই জেল থেকে রিয়ার মুক্তি পাওয়ার কথা থাকলেও তাকে ৬ অক্টোবর পর্যন্ত জেলেই থাকতে হচ্ছে। এরইমধ্যে মাদককাণ্ডে রিয়ার ভাই শৌভিককেও গ্রেফতার করা হয়েছে।

গেল ১৪ জুন মুম্বাইয়ের বান্দ্রার বাড়ি থেকে সুশান্ত সিং রাজপুতের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়। শুরুতে মুম্বাই পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করে। পরে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে তা কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা (সিবিআই) এর হাতে উঠে তদন্তভার।

সুশান্তের মৃত্যুর পর ২৫ জুলাই তার বাবা কে কে সিং অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে আত্মহত্যায় প্ররোচনা ও বিষণ্নতার জন্য তাকে দায়ী করে এফআইআর দায়ের করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here