নারী নির্যাতন নিয়ে মুখ খুললেন অভিনেত্রী জয়া আহসান

বিনোদন:সমাজের ‘অঙ্গ’ নারী। পৃথিবীর সকল সভ্যতার ইতিহাসেই মহীয়সী নারীদের অবদানের প্রমাণ রয়েছে। নারী এখন সর্বত্র তার শক্তি ও মেধার আলো ছড়িয়ে দিয়েছে। এমন সময়ে এসেও শুনতে হয় নারী তার নিজ গৃহেই নির্যাতিতা। প্রায়ই আসে মন খারাপের অনেক খবর। এসব নির্যাতন বন্ধে অনেক ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান কাজ করে যাচ্ছেন দীর্ঘদিন ধরে। নারীর ওপর অত্যাচারের প্রতিবাদে কাজ করছে প্যান কমনওয়েলথ। সেই প্ল্যাটফর্মে দাঁড়িয়ে বিশ্বের অনেক তারকাই নিজেদের মতামত জানাচ্ছেন। সবাইকে সতর্ক করছেন। এবার এ বিষয়ে মুখ খুললেন অভিনেত্রী জয়া আহসান। আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন বহু তারকা শামিল এই প্রতিবাদ প্রচারে। সেখানেই ‘নো মোর’ ক্যাম্পেনিংয়ে শামিল হয়েছেন জয়া। তিনি বলেছেন, নির্যাতন নয়, নারীর জন্য প্রয়োজন ভালোবাসা ও সম্মান। তিনি একটি ভিডিও বার্তায় বলেছেন, ‘হতে পারে এই অত্যাচার যৌন নিপীড়ন। হতেই পারে মারধর, গৃহ নির্যাতন। অনন্তকাল ধরে এসব নীরবে সহ্য করে আসছেন নানা বয়সের মেয়েরা। আজ পর্যন্ত ঘটনাগুলোর প্রতিবাদ করেনি কেউ! অত্যাচার থামানোরও চেষ্টা করেনি। উল্টে সাফাই গেয়েছে, এটা ব্যক্তিগত ঘটনা। এই নিয়ে বাইরে কথা হবে কেন? এবার বলার সময় এসেছে, ‘আর না’।’’ কমনওয়েলথের সপ্তাহব্যাপী এই বিশেষ প্রচারে ৫৪টি সদস্য দেশ যুক্ত। সেই মঞ্চে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করতে পেরে জয়া গর্বিত। তিনি জানান, ঘরে বন্দী হয়ে মুখ চেপে থাকে অত্যাচারে, অবিচারে মৃতপ্রায় শত শত নারী। মহামারির মতো সারা বিশ্বে ছেয়ে গিয়েছে এই ন্যক্কারজনক ঘটনা। সমাজ নারীদের নিরাপত্তা দিতে পারছে না। এ নিয়ে প্রতিবাদও করছে না। অভিনেত্রী প্রশ্ন তুলেছেন, কোভিড-১৯ নিয়ে সবাই আতঙ্কিত। নিত্যদিন ঘটে চলা অকথ্য অত্যাচার কত নারীর জীবন শেষ করে দিচ্ছে। সেটা আতঙ্কের নয়? দুনিয়া থেকে, নারীর জীবন থেকে এই ধরনের কলঙ্কিত অধ্যায় মুছে ফেলতে তাই ডাক দিয়েছেন, ‘নিপীড়ন যাক। ভালবাসা আসুক। সুস্থ, আতঙ্কহীন জীবনের স্বপ্ন দেখুক নারীও।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here