হাসপাতালে কেন অভিযান চালাতে হবে? প্রশ্ন স্বাস্থ্যমন্ত্রীর

নিজস্ব প্রতিনিধি:সম্প্রতি দেশে করোনা ভাইরাসের রিপোর্ট জালিয়াতিসহ নানা অনিয়মে রিজেন্ট, জেকেজিসহ কয়েকটি হাসপাতাল অভিযান চালিয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। তাতে বেড়িয়ে এসেছে ভয়ঙ্কর সব অনিয়ম-দুর্নীতি। আলোচনায় এসেছে দেশ ও বিদেশব্যাপী।

হাসপাতালগুলোতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর এমন অভিযান নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। তিনি অনিয়ম ঘটলে বেসরকারি হাসপাতালগুলোতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর এককভাবে অভিযান চালানোর বিপক্ষে অবস্থান জানিয়েছেন।

রবিবার (৯ আগস্ট) সচিবালয়ে বিশ্ব মাতৃদুগ্ধ সপ্তাহ উপলক্ষে আয়োজিত ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে জাহিদ মালেক বলেন, ‘এটা অভিযান কেন? হাসপাতালে কি অভিযান করে? হাসপাতালে ইনকোয়ারি করে। অভিযান তো করে চিটাগং হিল ট্রাক্টসে, সেখানে সন্ত্রাসী থাকে, সেখানে অভিযান করে।”

র‌্যাব-পুলিশের অভিযানের পর সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে অভিযান চালানো থেকে বিরত থাকতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে গত ৪ অগাস্ট চিঠি দেয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। তাহলে কি বেসরকারি হাসপাতালে অনিয়ম বন্ধে অভিযান বন্ধ হয়ে গেল?

সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাব দিতে গিয়ে অভিযান শব্দটি নিয়ে আপত্তি তুললেও অনিয়মের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা চলবে বলে জানান তিনি। তিনি বলেন, ‘স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের একটা সমঝোতা হয়েছে যে এই ধরনের ব্যবস্থা নিতে গেলে তা যৌথভাবে করা হবে।’

হাসপাতালগুলো আইন ভাঙলে আইন অনুযায়ীই ব্যবস্থা নেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে তিনি বলেন, ‘এককভাবে ওনারা কোনো জায়গায় যাবে না, ওনারা আমাদের সাথে আলোচনা করে, আমরাও দরকার হলে ওনাদেরকে নিয়ে যাবো। কাজেই অভিযান বন্ধ হয়ে গেছে, এ কথাটা ঠিক নয়।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here