বরিশাল এয়ারপোর্ট থানায় ৫টি গরুসহ চোর চক্রের ৩ সদস্য আটক

বাবুগঞ্জ প্রতিনিধি॥ বরিশাল এয়ারপোর্ট থানা পুলিশের
সফল অভিযানে চুরি হওয়া মামলায় ৫ টি চোরাই গরুসহ আন্ত:জেলা চোর চক্রের ৩ সদস্যকে গ্রেফতার, ১টি প্রাইভেট কার ও ১টি পিকাপ ভ্যান উদ্বার করা হয়েছে ।
বৃহস্পতিবার(২৩ জুলাই)বেলা ১২ টার দিকে এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বরিশাল মেট্রোপলিটন পলিটন পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনার(উত্তর) জনাব মোঃ খাইরুল আলম।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি জানান, গত ১৯ জুন গভীর রাতে বরিশালের এয়ারপোর্ট থানাধীন উত্তর কড়াপুর এলাকার বাসিন্দা জাকির হোসেন শাকিল এর গোয়ালঘর থেকে ৪ টি পালিত গরু চুরি হয় এবং ২৬ জুন বাবুগঞ্জ উপজেলার এয়ারপোর্ট থানাধীন মাধবপাশা ইউনিয়নের চন্দ্রপাড়া এলাকার বাসিন্দা দিলিপ কুমার মন্ডলের গোয়াল ঘর থেকে ৫ টি পালিত গরু চুরি হয়। উক্ত ঘটনায় এয়ারপোর্ট থানায় পৃথক মামলা দায়ের করা হয়। মামলা দায়েরের পরে উপ-পুলিশ কমিশনার(উত্তর) জনাব মোঃ খাইরুল আলমের নির্দেশে অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার(উত্তর) জাকারিয়া রহমান জিকুর নের্তৃত্বে এয়ারপোর্ট থানার সহকারী পুলিশ কমিশনার নাসরিন জাহান ও অফিসার ইনচার্জ এস এম জাহিদ বিন আলমের তত্বাবধায়নে এস আই দিপায়ন ও এস আই রায়হানুর রহমান তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় বুধবার ২২ জুলাই রাতে অভিযান চালিয়ে তিন চোরকে গ্রেফতার করেন। এ সময় তাদের কাছ থেকে চুরি হওয়া ৫ টি গরু ও চোরাই কাজে ব্যবহৃত একটি প্রাইভেট কার ও একটি পিকআপ উদ্ধার করা হয়েছে। তিনি আরও জানান, রাতের আধাঁরে চুরি হওয়া ক্লু লেস মামলায় আটক কৃতরা হলো মোঃ সুমন প্যাদা(৩৭), মোঃ শাহ আলম(৩৫), ইমরান হাওলাদার(২২)। এদের মধ্য সুমন প্যাদা ও শাহ আলমকে বরিশাল এবং ইমরান হাওলাদারকে ঝালকাঠী জেলার রাজাপুর থানার কৈ খালী থেকে গ্রেফতার করা হয়।

উপ-পুলিশ কমিশনার(উত্তর) জনাব মোঃ খাইরুল আলম জানান, এরা বরিশালের বিভিন্ন এলাকা থেকে গরু চুরি করে পিকআপে উঠিয়ে পটুয়াখালী, বরগুনা, ঝালকাঠী ও পিরোজপুর নিয়ে বিক্রি করে। আর প্রাইভেট কারটি ছাগল চুরি ও চুরির করার স্থান নির্ধারনের কাজে ব্যাবহার করত। চুরির সাথে জড়িত বাকীদেরও গ্রেফতার করার প্রচেস্টা চলছে। গ্রেফতার কৃত আসামীদের আদালতে প্রেরন করা হয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (উত্তর) মোঃ জাকারিয়া রহমান জিকু, এয়ারপোর্ট থানার সহকারী পুলিশ কমিশনার নাসরিন জাহান, অফিসার ইনচার্জ এস এম জাহিদ বিন আলম সহ অন্যান্য কর্মকর্তা বৃন্দ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here