গৃহবধূর ফাঁস নেয়া মরদেহ উদ্ধার, স্বজনদের দাবি পরিকল্পিত হত্যা

মাগুরা প্রতিনিধি: মাগুরা শহরের নতুন বাজার সাহাপাড়া এলাকায় ফাল্গুনি অধিকারী নামে এক গৃহবধূর ফাঁস নেয়া মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সে ওই এলাকার ব্যবসায়ী শুভ অধিকারীর স্ত্রী।

শুক্রবার সকালে ওই গৃহবধূর ফাঁস নেয়া মরদেহ উদ্ধার হয়। ঘটনার পর থেকে মৃতের স্বামী শুভ অধিকারী পলাতক রয়েছে।

ফাল্গুনির বাবা অশোক অধিকারী অভিযোগ করেন, এক বছর আগে তার মেয়ে ফাল্গুনির বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে বিভিন্ন সময় মেয়ের স্বামী, শাশুড়ি ও পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা তার উপর নানা ধরনের অত্যাচার নির্যাতন করতো। শুক্রবার সকালে তারা মেয়েকে হত্যা করে গলায় দড়ি দিয়ে ঝুলিয়ে রেখেছে  শুভ ও তার পরিবারের সদস্যরা। তিনি এ ঘটনার সুষ্ঠ বিচার দাবি করেন।

মাগুরা সদর সার্কেলের এএসপি আহসান হাবিব বলেন, শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে শহরের নতুন বাজার সাহাপাড়া এলাকায় অস্বাভাবিক মৃত্যুর খবরে আমরা সেখানে গিয়ে ওই গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করি। মরদেহের গলায় দড়ি নেয়ার দাগ রয়েছে।

তবে মৃতের বাবার বাড়ির পক্ষ থেকে এটিকে পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড বলে উল্লেখ করা হয়েছে। বিষয়টিকে মাথায় রেখে আমরা মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছি । এ ব্যাপারে মাগুরা সদর থানায় মামলা হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেয়ে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। নিহতের স্বামী শুভ অধিকারী পালিয়ে গেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here