বুড়িগঙ্গায় লঞ্চডুবির ১৩ ঘণ্টা পর জীবিত উদ্ধার!

নিজস্ব প্রতিনিধিঃবুড়িগঙ্গায় লঞ্চডুবির ঘটনায় একজনকে ১৩ ঘণ্টা পর জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। তার নাম সুমন (৩২)। ফায়ার সার্ভিস কন্ট্রোল রুমের ডিউটি অফিসার শাহাদৎ হোসেন  বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, লঞ্চ ডুবির ১৩ ঘণ্টা রাত ১০টায় একজনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। তাই আপাতত নাম ঠিকানা কিছুই জানা সম্ভব হয়নি।

জানা যায়, ডুবে যাওয়া লঞ্চটি উদ্ধারে এখনও উদ্ধারকর্মীরা তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে। ইয়ার লিফটিং প্রক্রিয়ায় লঞ্চ উপরের দিকে উঠানোর চেষ্টা করছিল ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল। তখনই লঞ্চের নিচ থেকে এই ব্যক্তিটি ভেসে উঠেন। জীবিত থাকলেও তিনি এখন পর্যন্ত কথা বলতে পারছেন না। তাই নাম ঠিকানা জানা সম্ভব হয়নি। মিটফোর্ড স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজের ক্যাজুয়ালিটি ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে তাকে।

এর আগে সোমবার (২৯ জুন) সকাল নয়টার দিকে এমএল মর্নিং বার্ড নামের লঞ্চটি মুন্সিগঞ্জের কাঠপট্টি এলাকা থেকে সদরঘাটের উদ্দেশে রওনা হয়। ময়ূর–২ নামের আরেকটি লঞ্চ সদরঘাট লালপট্টি থেকে চাঁদপুরের দিকে যাচ্ছিল। ওই লঞ্চটি মর্নিং বার্ডকে ধাক্কা দেয়। সদরঘাটের কাছেই ফরাশগঞ্জ ঘাট এলাকায় নদীতে মর্নিং বার্ড লঞ্চটি ডুবে যায়। এখন পর্যন্ত নারী ও শিশুসহ ৩২ জনের মরদেহ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিস ও কোস্টগার্ড। উদ্ধার ৩২ জনের মধ্যে ৩০ জনের নাম পরিচয় পাওয়া গেছে। রাজধানীর পুরান ঢাকায় অবস্থিত মিটফোর্ড হাসপাতাল থেকে ময়নাতদন্ত ছাড়াই এই মরদেহগুলো স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here