পিরোজপুরে জ্বর-কাশি নিয়ে দুই ভাইয়ের মৃত্যু

পিরোজপুর প্রতিনিধি: কিছুদিন আগেই সুন্দর পৃথিবীর জন্য সমান তালে এগিয়ে যাওয়ার স্বপ্নে বিভোর ছিল বিশ্বের সমগ্র জাতি। পথিমধ্যে হঠাৎ করেই এ যেন থমকে যাওয়া। প্রতিবন্ধকতার নাম প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯)। 

করোনাভাইরাস সৃষ্ট এ মহামারির কারণে বিশ্ব মুখোমুখি হয়েছে অভাবনীয় এক সংকটের। এ থাবা থেকে রেহাই পেল না পিরোজপুরের ইন্দুরকানী উপজেলাও।ইন্দুরকানীতে করোনা উপসর্গ নিয়ে পল্লী চিকিৎসক নির্মল দাসের মৃত্যুর পর এবার তার আপন ভাই সুনীল দাস মারা গিয়েছেন।  

১৬ জুন মঙ্গলবার রাতে পিরোজপুরের একটি বেসরকারি হাসপাতালের আইসোলেসনে নেয়ার পর তার মৃত্যু হয়।

তাদের পরিবারের কয়েকজন সদস্য জ্বর-কাশি নিয়ে অসুস্থ রয়েছেন। 

সুনীল দাসের ছোট ভাই নির্মল দাস পাঁচ দিন আগে করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন। পাঁচ দিনের ব্যাবধানে মারা গেল বড় ভাই সুনীল দাস। দুই ভাই ইন্দুরকানী বাজারের পল্লী চিকিৎসক ছিলেন। ছোট ভাই নির্মল দাসের মৃত্যুর পরে পরিবারের সব সদস্য করোনা পরীক্ষার জন্য ইন্দুরকানী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নমুনা দিয়ে এসেছিল। কিন্তু রিপোর্ট আসার আগেই বড় ভাই মারা গেল। 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here