রমজান মাস কেন্দ্র করে বাবুগঞ্জে লাগলামহীন নিত্য পন্যের বাজার!

 অারিফ হোসেন,বাবুগঞ্জ: পবিত্র মাহে রমজান মাসকে কেন্দ্র করে ও করোনা ভাইরাস ইস্যুতে বরিশালের বাবুগঞ্জের হাট বাজারে নিত্য পন্যের দাম বেড়েছে কয়েকগুন। উপজেলা প্রশাসনের নজড়দারি এড়িয়ে ১ সপ্তাহ পূর্বের ২২০ টাকা মূল্যের আদা হঠাৎ ৩৮০ থেকে ৪৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে , রশুন এবং পিঁয়াজেও বেড়েছে কেজি প্রতি ১৫-২০ টাকা । বাবুগঞ্জের রহমতপুর, বাবুগঞ্জ, মোহোনগঞ্জ, মাধবপাশা সহ আরো কয়েকটি বাজারের চিত্র প্রায় একই। এসব বাজার ঘুরে দেখা যায় রমজানে উপলক্ষে যেসব পন্য দরকার তার সবগুলোই গত সপ্তাহের তুলনায় বাড়িয়ে বিক্রি করছেন দোকানিরা। ছোলা গত সপ্তাহে প্রতি কেজির দাম ছিল ৬৫ টাকা এখন তা বিক্রি হচ্ছে ৮০ টাকায়, তেমনি ভাবে মুশুর ডাল ৭০ টাকার পরিবর্তে ৯০ থেকে ১০০ টাকা । এছাড়াও চিনি, চিড়া, গুড়, ইসবগুলের ভুসি, সয়াবিন তেলসহ কয়েকটি পন্যে পূর্বের তুলনায় কেজি প্রতি ১০ থেকে ২০ টাকা বৃদ্ধি করা হয়েছে। মুদি পন্যের সাথে তালমিলিয়ে বসে নেই সবজি কিংবা ফলের বাজার। সসা , কাচামরিচ, বেগুন কেজি প্রতি একলাফে ২০-৩০ টাকা বৃদ্ধি পেয়েছে। ১৫০ টাকার মাল্টা বিক্রি হচ্ছে ২৫০, আপেল , নাসপাতি ও খেজুরে কেজি প্রতি বেড়েছে ৩০ থেকে ৫০ টাকা। এব্যাপারে কথা হলে ব্যাবসায়ীরা জানান, করোনায় আমদানি কম তাই বেশি দামে কেনার ফলে বিক্রিও করতে হচ্ছে বেশি। করোনা মহামারিতে মানুষ যখন কর্মহীন হয়ে পরেছে তার উপরে রমজানেকে পূজি করে এমন মূল্য বৃদ্ধিতে সাধারন ক্রেতারা পরেছেন চরম বিপাকে, তারা ব্যাবসায়ীদের এমন দাবি মানতে নারাজ। তাদের বক্তব্য ব্যাবসায়ীরা রমজান আসলেই সিন্ডিকেট করে সবধরনের প্রয়োজনীয় পন্যেও দাম বাড়িয়ে তাদের খেয়াল খুশি মত রাখেন। প্রশাসনের সঠিক মনিটরিংএর দাবি করেন বাবুগঞ্জের সাধারন ক্রেতা গন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here