শেবাচিমে সেবা প্রদান বিরত রেখেছে ৪০ ইন্টার্ন

নিজস্ব প্রতিনিধিঃশেবাচিম হাসপাতালে আরও তিনজন চিকিৎসকের শরীরে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া গেছে। এদের মধ্যে দুইজন ইন্টার্ন চিকিৎসক। ফলে করোনা আতঙ্ক এবং নিরাপত্তার দাবিতে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ৪০ জন ইন্টার্ন চিকিৎসক রোববার সকাল থেকে সেবা প্রদান থেকে বিরত রয়েছেন।
হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, হাসপাতালের পরিচালকের কাছে গিয়ে ওই ৪০জন ইন্টার্ন চিকিৎসক তাদের থাকা-খাওয়া ও নিরাপত্তার বিষয়ে বিভিন্ন দাবি দাওয়া তুলে ধরেন এবং তাদের করোনা পরীক্ষা করানোর দাবি জানান। ইন্টার্ন চিকিৎসকদের একটি সূত্রে জানা গেছে, তারা ৪০ জন নয়, সকল ইন্টার্নরাই কাজ করা থেকে বিরত রয়েছেন। তারা পরিচালকের কাছে লিখিতভাবে তাদের দাবিনামা পেশ করেছেন। যেখানে মানসম্মত পিপিই, গ্লোভস, মাস্ক, স্যানিটাইজারসহ নিরাপত্তা সরঞ্জাম চাওয়া হয়েছে। পাশাপাশি কোন চিকিৎসক আক্রান্ত হলে তার থাকা ও খাওয়ার ব্যবস্থা কি হবে এবং হোষ্টেলগুলোতে জীবানুনাশক স্প্রে করার জন্য বলা হয়েছে।
হাসপাতালের পরিচালক ডাঃ বাকির হোসেন জানান, শীঘ্রই সকল সমস্যার সমাধান হবে। তবে ওই ৪০ জনের মতো ইন্টার্নব্যতিত বাকিরা ও মিডলেভেলের চিকিৎসকরা হাসপাতালের সেবা কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছেন। রোগীর সংখ্যা কম থাকায় সেবা প্রদানে কোন সমস্যা হচ্ছেনা বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here