বরিশালে কর্মহীন মানুষের পাশে দাড়ালেন ইঞ্জিঃ সেলিম হাসান

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ“মানুষ মানুষের জন্য, জীবন জীবনের জন্য, একটু সহানুভূতি কি মানুষ পেতে পারে না, ও বন্ধু”। যে কোন দেশের প্রাকৃতিক ও সামাজিক দূর্যোগে কিছু মানুষ সব সময়ই অসহায় নীপিড়িত মানুষের পাশে দাড়ায়। তেমনি বর্তমানে বিশে^ মহামাড়ি আকার ধারণ করা করোনা ভাইরাসে যখন অসহায় দিনমজুর ও গরীব মানুষগুলো কর্মহীন হয়ে পড়েছে ঠিক সে সময়ই নিজস্ব উদ্যোগে সাধারণ খেটে খাওয়া কিছু মানুষের পাশে দাড়িয়েছেন ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন (ওজোপাডিকো) ডিভিশন-২ এর নতুন বাজার ফিডার ইনচার্জ ইঞ্জিনিয়ার সেলিম হাসান চৌধুরী।
বিশে^ বর্তমানে ভয়াবহ আতংকের নাম করোনা। ইতিমধ্যে বিশে^র ২শ’ দেশে এ ভাইরাসটি সংক্রমিত হয়েছে। বাংলাদেশেও এ ভাইরাসের আক্রমনে ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ দেশের সরকার ভয়াবহ এ সংক্রমন থেকে মানুষকে রক্ষায় বিভিন্ন পরিবহন ও গণজমায়েত বন্ধ করতে সশস্ত্র বাহিনীর সাথে অন্যান্য আইন শৃঙ্খলা বাহিনী মাঠ পর্যায়ে কাজ করছে।
গরীব অসহায় মানুষের কর্মসংস্থানের অভাব সৃষ্টি হওয়ায় দেশব্যাপী বিভিন্ন সংস্থার পাশাপাশি ব্যক্তিগত উদ্যোগেও এ অসহায় মানুষগুলোর পাশে দাড়িয়েছে। বরিশাল নগরীতে এ রকমই একটি দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন (ওজোপাডিকো) ডিভিশন-২ এর নতুন বাজার ফিডার ইনচার্জ ইঞ্জিনিয়ার সেলিম হাসান চৌধুরী। প্রাতিষ্ঠানিক পর্যায়ে না হলেও সম্পূর্ণ নিজ উদ্যোগে নতুন বাজার এলাকার অসহায় কিছু মানুষের পাশে দাড়িয়েছেন তিনি। আজ বুধবার (১ এপ্রিল) সকাল ১০ টার দিকে নতুন বাজার বিদ্যুৎ অফিস থেকে ৫০ জন অসহায় খেটে খাওয়া (দিনমজুর) মানুষের মাঝে খাবার সামগ্রী ও নগদ অর্থ বিতরণ করেন।
যার মধ্যে রয়েছে ৬ কেজি চাল, ২ কেজি আলু, ১ কেজি পেঁয়াজ, ১ কেজি মুশুরী ডাল, ১ লিটার সয়াবিন তেল, ১ কেজি লবন, ১টি হুইল সাবান, ১ প্যাকেট আটা, ১টি লাক্স ও ১টি স্যাভলন সাবান এবং নগদ ২০ হাজার টাকা।
সাহায্য নিতে আসা দিনমজুর মোঃ ফারুক বলেন, তার পরিবারে উপার্জনক্ষম ব্যক্তি তিনি একা। অথচ পরিবারের মোট সদস্য ৫জন। বর্তমানে কাজ কর্ম না থাকায় ছেলে মেয়ে নিয়ে কস্টে দিনযাপন করছেন। বিদ্যুৎ অফিসের ইঞ্জিনিয়ার সাহেব চাল ডাল দিচ্ছে শুনে তিনি এসেছেন। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, যা সহায়তা দেয়া হয়েছে তাতে তার দু/চার দিন চলবে। শেফালী নামের ষাটোর্ধ্ব এক ব্যক্তি বলেন, “যে রোগ আইছে, হেইয়ার মধ্যেও ওনার (ইঞ্জিনিয়ারের) মতো লোক মোগো লইগ্যা সাহায্য দেছে। আল্লায় (আল্লাহ) তার ভাল করুক।”
নতুন বাজার ফিডার ইনচার্জ ইঞ্জিনিয়ার সেলিম হাসান চৌধুরী বলেন, চীনের উহান প্রদেশ থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনা ভাইরাস বিশ^ব্যাপী মহামারি আকার ধারণ করেছে। আমাদের দেশের সরকার এ মহামারি থেকে রক্ষায় সাধারণ ছুটি ঘোষণা করেছেন। বিভিন্ন গণপরিবহন বন্ধ হয়ে যাওয়ায় খেটে খাওয়া মানুষগুলো অর্ধাহারে দিন কাটাচ্ছে বলে নিজস্ব উদ্যোগে সম্পূর্ণ ব্যক্তিগতভাবে সীমিত আকারে কিছু লোকের জন্য সাহায্য করেছি মাত্র। তবে সমাজের বিত্তবান লোকগুলো যদি যে যার সাধ্যমতো এ ধরণের উদ্যোগ নেয় তাহলে আমাদের দরিদ্র মানুষগুলো বেঁচে যাবে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here